বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > ‘‌তদন্তকারীদের কিছু জানার ছিল’‌, সিবিআই দফতর থেকে বেরিয়ে জবাব শোভনের
সিবিআই দফতরে আসেন শোভন। তাঁর সঙ্গে ছিলেন বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়ও।
সিবিআই দফতরে আসেন শোভন। তাঁর সঙ্গে ছিলেন বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়ও।

‘‌তদন্তকারীদের কিছু জানার ছিল’‌, সিবিআই দফতর থেকে বেরিয়ে জবাব শোভনের

  • বৃহস্পতিবার সকালে সিবিআই দফতরে আসেন শোভন। তাঁর সঙ্গে ছিলেন বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়ও।

এবার সিবিআই দফতরে এলেন প্রাক্তন মেয়র শোভন চট্টোপাধ্যায় এবং বান্ধবী বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়। বেআইনি অর্থলগ্নি সংস্থা আইকর মামলায় এবার তদন্তের স্বার্থে তলব করা হল শোভন চট্টোপাধ্যায়কে। বৃহস্পতিবার সকালে সিবিআই দফতরে আসেন শোভন। তাঁর সঙ্গে ছিলেন বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়ও। আজ প্রায় তিন ঘণ্টা জিজ্ঞাসাবাদ করা হয় তাঁকে।

এদিন সিবিআই দফতর থেকে বেরিয়ে তিনি জানান, কোনও অভিযোগ নেই তাঁর বিরুদ্ধে। সাক্ষী হিসেবে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে। তিনি যখন মেয়র ছিলেন তখন কলকাতার ঐতিহ্যবাহী ‘উত্তম মঞ্চ’ বিক্রি হয় আইকোরের কাছে। কিন্তু সেটায় বাধা দেওয়া হয়েছিল এবং আইকোরকে সেই টাকা ফেরত দেওয়া হয়। এই বিষয় নিয়ে আজ তিনি তদন্তকারীদের মুখোমুখি হয়েছিলেন।

এই আইকোর চিটফান্ড কেলেঙ্কারির নিয়ে কামারহাটির বিধায়ক মদন মিত্র এবং তাঁর ছেলে স্বরূপ মিত্রকে সিবিআই তলব করে। তখন সিবিআই দফতরে হাজিরাও দেন মদন মিত্র। এমনকী তৃণমূল কংগ্রেসের মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায়কেও আইকর মামলায় তলব করা হয়েছিল। এদিন ভবানীপুরের ভোট নিয়ে তিনি বলেন, ‘‌ভবানীপুরে ভাল ভোট হচ্ছে। মানুষ সাম্প্রতিক পরিস্থিতি বিচার করে তাঁদের রায় দেবেন।’‌

আজ বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়কে সঙ্গে নিয়ে গিয়েছিলেন শোভন চট্টোপাধ্যায়। এখানে তিনি আইকরের সাক্ষী হিসাবে তদন্তকারীদের মুখোমুখি হয়েছিলেন। তিনি বলেন, ‘‌তদন্তকারীদের কিছু জানার ছিল। তাই আমাকে ডাকা হয়েছিল। আমি পূর্ণ সহযোগিতা করেছি। উত্তম মঞ্চ নিয়ে যা যা প্রশ্ন আমাকে করা হয়েছিল আমি তার সব উত্তর দিয়েছি।’‌

বন্ধ করুন