বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > 'পদ বণ্টন নিয়ে তাঁর বক্তব্য জানি না',শান্তনুকে তোপ বনগাঁ দক্ষিণের BJP বিধায়কের
বনগাঁ দক্ষিণের বিধায়ক স্বপন মজুমদার।
বনগাঁ দক্ষিণের বিধায়ক স্বপন মজুমদার।

'পদ বণ্টন নিয়ে তাঁর বক্তব্য জানি না',শান্তনুকে তোপ বনগাঁ দক্ষিণের BJP বিধায়কের

বনগাঁর বিধায়কের কথায়, নতুন রাজ্য কমিটি তৈরি হওয়ার পর ৪–৫ দিনের মাথায় বিজেপি বিধায়করা আওয়াজ তুলছেন। ৪–৫দিন পরে কেন তাঁরা আওয়াজ তুললেন?

‌বিজেপির নতুন রাজ্য কমিটি গঠনের পর মতুয়া সম্প্রদায়ের তিনজন বিধায়ক হোয়্যাটসঅ্যাপ গ্রুপ ত্যাগ করেছেন। কিন্তু বিজেপি ছেড়ে দলবদলের পথে হাঁটতে নারাজ বনগাঁ দক্ষিণের বিধায়ক স্বপন মজুমদার। এই প্রসঙ্গে তাঁর বার্তা, ‘‌আমি বিজেপির সঙ্গে আছি। মতুয়াদের সঙ্গে আছি। তার বাইরে যদি কোনও কিছু হয়, তার সঙ্গে নেই।’‌

এদিন বিজেপির রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদারের সঙ্গে দেখা করতে আসেন বনগাঁ দক্ষিণের বিধায়ক স্বপন মজুমদার। রাজ্য কমিটি তৈরির পর মতুয়া সম্প্রদায়ের মধ্যে তৈরি হওয়া অসন্তোষ প্রসঙ্গে বিজেপি বিধায়ক জানান, ‘‌মতুয়াদের স্বার্থে আমরা সবসময় তাঁদের সঙ্গে আছি। কিন্তু যে বিষয়টি হোয়্যাটস অ্যাপ গ্রুপ ছাড়া হচ্ছে, সে বিষয়ে দলের সঙ্গে আলোচনা করে সমস্যা মিটিয়ে নেওয়া যেত। আমরা সব বিধায়ক হয়েছি বিজেপির জন্যই। মতুয়া যাঁরা বিজেপির থেকে বিধায়ক রয়েছেন, তাঁদের সবাই মিলে একসঙ্গে বসে আলোচনা করা উচিত। কিন্তু আমি তো জানি না। তাহলে আমি কী বলব।’‌ একইসঙ্গে তিনি বিজেপি সাংসদ শান্তনু ঠাকুরকে নিশানা করে জানান, ‘‌মতুয়াদের ক্ষেত্রে আমরা এক ফোরামে আছি। দলবদল ও পদ বণ্টনের ক্ষেত্রে ওঁনার কী বক্তব্য আছে, তা আমি জানি না। আমাকে জানানোও হয়নি।’‌

গত বিধানসভা ভোটে মতুয়া সম্প্রদায়ের ৬ জন বিধায়ক বিজেপি থেকে নির্বাচিত হন। সম্প্রতি বিজেপি সাংসদ শান্তনু ঠাকুর মতুয়া বিধায়কদের নিয়ে বৈঠক ডেকেছিলেন। কিন্তু সেই বৈঠকে বনগাঁ দক্ষিণের বিধায়ক উপস্থিত ছিলেন না। বনগাঁর বিধায়কের কথায়, নতুন রাজ্য কমিটি তৈরি হওয়ার পর ৪–৫ দিনের মাথায় বিজেপি বিধায়করা আওয়াজ তুলছেন। ৪–৫দিন পরে কেন তাঁরা আওয়াজ তুললেন। আমি চাই, রাজ্য কমিটিতে মতুয়াদের মধ্যে প্রতিনিধিত্ব হোক। কিন্তু কেন রাজ্য কমিটিতে মতুয়াদের প্রতিনিধিত্ব রাখা হল না সেটা আগের থেকে ভাবা দরকার ছিল।

বন্ধ করুন