বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > ‘‌ললিপপ নিয়ে আমি রাজনীতি করি না’‌, ফের বিদ্রোহী মেজাজে অর্জুন সিং
ব্যারাকপুরের বিজেপি সাংসদ অর্জুন সিং।
ব্যারাকপুরের বিজেপি সাংসদ অর্জুন সিং।

‘‌ললিপপ নিয়ে আমি রাজনীতি করি না’‌, ফের বিদ্রোহী মেজাজে অর্জুন সিং

  • শনিবার রাতে বস্ত্রমন্ত্রী পীযূষ গোয়েলের সঙ্গে বৈঠক করে হাসিমুখে ছবি পোস্ট করেছেন ব্যারাকপুরের বিজেপি সাংসদ অর্জুন সিং। তবে এখনই লড়াই ছাড়ছেন না। কারণ আবারও সুর চড়ালেন অর্জুন সিং। এমনকী, তৃণমূল কংগ্রেসের আন্দোলন কর্মসূচিকে সমর্থন জানালেন তিনি।

কেন্দ্রীয় বস্ত্রমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকের পর অনেকেই ধরে নিয়েছিলেন অর্জুনের তির আর শব্দ করবে না। কিন্তু বেলা গড়াতেই ফের ধনুকের ডঙ্কার শোনা গেল। শনিবার রাতে বস্ত্রমন্ত্রী পীযূষ গোয়েলের সঙ্গে বৈঠক করে হাসিমুখে ছবি পোস্ট করেছেন ব্যারাকপুরের বিজেপি সাংসদ অর্জুন সিং। তবে এখনই লড়াই ছাড়ছেন না। কারণ আবারও সুর চড়ালেন অর্জুন সিং। এমনকী, তৃণমূল কংগ্রেসের আন্দোলন কর্মসূচিকে সমর্থন জানালেন তিনি।

ঠিক কী বলেছেন ব্যারাকপুরের সাংসদ?‌ আজ, রবিবার নয়াদিল্লির সংবাদমাধ্যমে তিনি বলেন, ‘আন্দোলন চলবে। যতক্ষণ না পাই, ততক্ষণ আন্দোলন চলবে। ওই সব ললিপপ নিয়ে আমি রাজনীতি করি না। বহু ললিপপ আমি দেখেছি। শেষে গিয়ে সব ধরাশায়ী হয়ে যায়। এটার সুরাহা না হলে, ব্যাপকভাবে আন্দোলন হবে। দলের বিরুদ্ধে না, দলের পক্ষে সেটা পরের কথা। রাস্তায় নামব এটা নিশ্চিত।’‌

বস্ত্রমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকের পর কী বলেছিলেন অর্জুন সিং?‌ শনিবার বৈঠক এবং নৈশভোজের পর সংবাদমাধ্যমে তিনি বলেন, ‘পীযূষজি আমার দাবি শুনে সবই মেনে নিয়েছেন। বিষয়টা নিয়ে মন্ত্রকের আধিকারিকদের সঙ্গেও তিনি কথা বলেছেন। আমাকেও কথা বলতে বলেছেন। আমি সোমবারই দেখা করতে যাচ্ছি।’‌ অর্থাৎ ‌সোমবার বস্ত্র মন্ত্রকের সচিবের সঙ্গে বৈঠকে বসছেন তিনি।

তাহলে হঠাৎ আবার বিদ্রোহ কেন?‌ এই বিষয়ে তৃণমূল কংগ্রেসের রাজ্য সম্পাদক কুণাল ঘোষ বলেন, ‘‌উনি কী ইঙ্গিত করতে চাইছেন, এই বিষয়ে আমি কিছু বলব না। শুধু বলব, উনি আজ বুঝতে পারছেন যে, বাংলার উন্নয়নে দিল্লির বিজেপি বন্ধু নয়। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কেই লাগে।’‌ তাহলে কী আবার অর্জুনের ঘরে ফেরার পালা?‌ উঠছে প্রশ্ন।

বন্ধ করুন