বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > ‘‌বাংলা ভাগ নিয়ে আলটপকা মন্তব্য নয়’‌, রাজ্য নেতাদের কড়া বার্তা জেপি নড্ডার
জেপি নড্ডা।

‘‌বাংলা ভাগ নিয়ে আলটপকা মন্তব্য নয়’‌, রাজ্য নেতাদের কড়া বার্তা জেপি নড্ডার

  • বিজেপি সাংসদ জন বার্লা থেকে জয়ন্ত রায়, বিধায়ক আনন্দময় বর্মণ থেকে বিষ্ণুপদ শর্মা—উত্তরবঙ্গকে পৃথক করতে চাইছেন। এমনকী নিশীথ প্রামাণিক সরাসরি অনন্ত রায়ের বাড়ি গিয়ে এই বিষয়টি উস্কে দিয়েছেন। দিলীপ ঘোষ উত্তরবঙ্গকে বঞ্চনার অভিযোগ তুলে ঘুরিয়ে এই দাবিকে সমর্থন করছেন।

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আলিপুরদুয়ারে এসে বলেছিলেন, রক্ত দিয়ে দেবো কিন্তু বাংলা ভাগ করতে দেবো না। তারপরও বিজেপি বিধায়ক–সাংসদরা উত্তরবঙ্গকে পৃথক জেলা বা কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল করার পক্ষে সওয়াল করে যাচ্ছিলেন। এমনকী বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি বাংলায় থাকাকালীন বিধায়ক বিষ্ণুপ্রসাদ শর্মা হুঙ্কার ছেড়ে রাজ্য ভাগ করবই বলে সুর চড়ান। এবার বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জেপি নড্ডা সাফ জানালেন, রাজ্য ভাগ হোক তা চায় না বিজেপি। নিউটাউনের হোটেলে বঙ্গ বিজেপি নেতাদের সঙ্গে বৈঠকে এই বার্তাই দেন তিনি।

কারা এই রাজ্য ভাগ চাইছেন?‌ বিজেপি সাংসদ জন বার্লা থেকে জয়ন্ত রায়, বিধায়ক আনন্দময় বর্মণ থেকে বিষ্ণুপদ শর্মা—উত্তরবঙ্গকে পৃথক করতে চাইছেন। এমনকী নিশীথ প্রামাণিক সরাসরি অনন্ত রায়ের বাড়ি গিয়ে এই বিষয়টি উস্কে দিয়েছেন। দিলীপ ঘোষ উত্তরবঙ্গকে বঞ্চনার অভিযোগ তুলে ঘুরিয়ে এই দাবিকে সমর্থন করছেন।

ঠিক কী বলেছেন জেপি নড্ডা?‌ আজ, বৃহস্পতিবার জেপি নড্ডা নিউটাউনের হোটেলে বঙ্গ–বিজেপি নেতাদের সঙ্গে বৈঠকে বসেন। সূত্রের খবর, সেখানে তিনি এই পৃথক রাজ্যের দাবি তোলা নিয়ে ক্ষোভপ্রকাশ করেন। আর রাজ্য নেতাদের বলেন, ‘‌বাংলা ভাগ নিয়ে প্রকাশ্যে আলটপকা মন্তব্য করা যাবে না। বাংলা ভাগ নিয়ে মুখ খুলবেন না। রাজ্য ভাগ হোক তা চায় না বিজেপি।’‌

মুফ্যমন্ত্রী ঠেক কী বলেছিলেন?‌ আলিপুরদুয়ারের সভা থেকে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘‌আলিপুরদুয়ার, কোচবিহারের মানুষকে বলব আমরা সবাই এক। কোনওভাবেই বাংলা ভাগ হতে দেব না। আমি রক্ত দেওয়ার জন্য তৈরি। রবীন্দ্রনাথ, নজরুল, পঞ্চানন বর্মাকে ভাগ করতে পারবেন?‌’‌ এবার যেন সেই সুরেউ কড়া বার্তা দিলেন জেপি নড্ডা।

বন্ধ করুন