বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > বিজেপির দুর্গাপুজো উদ্বোধন করার সম্ভাবনা জেপি নড্ডার, অনুরোধ বঙ্গ–নেতাদের
জেপি নড্ডা।
জেপি নড্ডা।

বিজেপির দুর্গাপুজো উদ্বোধন করার সম্ভাবনা জেপি নড্ডার, অনুরোধ বঙ্গ–নেতাদের

  • এবার আর বিজেপির দুর্গাপুজো উদ্বোধন করবেন না প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। পরিবর্তে তা উদ্বোধন করতে পারেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জেপি নড্ডা।

বিজেপির আইটি সেলের নেতা অমিত মালব্য বাংলার দুর্গাপুজো নিয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে কটাক্ষ করলেও নিজেদের ঘরের অন্দরের কোন্দল চেপে গিয়েছেন। একদিকে দলের দুর্গাপুজো নিয়ে মতবিরোধ দেখা দিয়েছিল রাজ্য সভাপতি বনাম সর্বভারতীয় সহ–সভাপতির। অন্যদিকে এখন আগের মতো সামনে কোনও বড় অ্যাজেন্ডা নেই। তাই এবার আর বিজেপির দুর্গাপুজো উদ্বোধন করবেন না প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। পরিবর্তে তা উদ্বোধন করতে পারেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জেপি নড্ডা। সূত্রের খবর, এবার সল্টলেকের পুজো ভার্চুয়ালি উদ্বোধন করার অনুরোধ করা হয়েছে বিজেপির জেপি নড্ডাকে।

এবার ভবানীপুর উপনির্বাচন এবং সামশেরগঞ্জ–জঙ্গিপুরের নির্বাচনে বিজেপি ধুযেমুছে সাফ হয়ে গিয়েছে। তাই তাঁদের মনে বিষাদের সুর। এই পরিস্থিতিতে জেপি নড্ডা আশার আলো দেখাবেন বলে মনে করছেন বঙ্গ– বিজেপির নেতারা। গত দু’বছর ধরে দুর্গাপুজো নিয়ে গেরুয়া শিবিরের মধ্যে বিশেষ আগ্রহ দেখা যায়। সল্টলেকের ইজেডসিসি-তে দুর্গাপুজোর আয়োজন করেছিল বিজেপি। কিন্তু তারপরও বাংলা জয় অধরা থেকে যায়।

কয়েকদিন আগে এই বিষয়ে দিলীপ ঘোষ বলেন. ‘‌যাঁরা পুজো করেছিলেন, তাঁদের চিন্তা ভাবনা করা উচিত এটা। পুজো করতে আপত্তি নেই। কয়েকজন মিলে পুজো করতেই পারেন। যেহেতু এবার বড় বড় পুজো হচ্ছে না, একটা হলের মধ্যে পুজো হলে ভালই হবে।’‌ পরপর পরাজয়ে বিজেপির পুজো নিয়ে অনিশ্চয়তা তৈরি হয়েছিল। তবে অবশেষে হচ্ছে বলেই খবর।

মঙ্গলবারই দিলীপ ঘোষ বলেছিলেন, ‘‌পুজো করাটা কোনও রাজনৈতিক দলের কাজ নয়। আমি প্রথম থেকে পুজোর পক্ষে ছিলাম না।’‌ পরে অবশ্য তিনি তাঁর বক্তব্য পরিবর্তন করেন। এবারও পুজো করা হবে ইজেডসিসিতে। অত্যন্ত ছোট করে। বিজেপির সদ্য নিযুক্ত রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদার বলেন, পুজো করার পক্ষে আছেন তিনি।

বন্ধ করুন