বাড়ি > বাংলার মুখ > কলকাতা > চাপ দিয়ে বিজেপি ছাড়ানো হয়েছে মেহেতাবকে, পশ্চিমবঙ্গে গণতন্ত্রের এই তো দশা: BJP
মঙ্গলবার বিজেপিতে যোগদান করছেন মেহেতাব হোসেন
মঙ্গলবার বিজেপিতে যোগদান করছেন মেহেতাব হোসেন

চাপ দিয়ে বিজেপি ছাড়ানো হয়েছে মেহেতাবকে, পশ্চিমবঙ্গে গণতন্ত্রের এই তো দশা: BJP

  • বিজেপি নেতা জয়প্রকাশ মজুমদার বলেন, এতে বিজেপির কোনও ক্ষতি হয়নি। বরং প্রমাণ হল, বাংলার কী অবস্থা।

ভয় দেখিয়ে মেহেতাবকে বিজেপি ছাড়তে বাধ্য করেছে তৃণমূল। ওকে তৃণমূলে যোগ দেওয়ানোর চেষ্টা হচ্ছে। যোগদানের ২৪ ঘণ্টার মধ্যে মেহেতাব হোসেনের বিজেপি ছাড়া প্রসঙ্গে এমনই প্রতিক্রিয়া জানালেন দলের মুখপাত্র সায়ন্তন বসু। মেহেতাবের দলত্যাগ নিয়ে কড়া প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষও।

মঙ্গলবার তৃণমূলের ২১ জুলাইয়ের ভার্চুয়াল সমাবেশের পর বিজেপি সদর দফতরে গিয়ে বিজেপিতে যোগ দেন মেহেতাব। তাঁর হাতে দলীয় পতাকা তুলে দেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। বিজেপিতে যোগ দিয়ে মেহেতাব বলেন, অনেকে বলে বিজেপি ধর্ম নিয়ে রাজনীতি করে। আমার তেমনটা মনে হয়নি। 

বুধবার দুপুরে ফেসবুকে এক পোস্ট করে মেহেতাব জানান, রাজনীতি থেকে অবসর নিচ্ছেন তিনি। শুভাকাঙ্খীদের পরামর্শেই এই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। তাঁর দাবি, বিজেপিতে যোগদান করার পর তিনি বুঝতে পেরেছেন মানুষ তাঁকে ফুটবলার হিসাবেই দেখতে চায়। 

মেহেতাবের BJP ছাড়া নিয়ে বিজেপি নেতা সায়ন্তন বসু বলেন, ভয় দেখিয়ে ওকে বিজেপি ছাড়ানো হচ্ছে। জোর করে তৃণমূলে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। এই তো রাজ্যের গণতন্ত্রের চেহারা।"

 

বিজেপি নেতা জয়প্রকাশ মজুমদার বলেন, এতে বিজেপির কোনও ক্ষতি হয়নি। বরং প্রমাণ হল, বাংলার কী অবস্থা। মেহেতাব ফেসবুকে যা লিখেছেন,  তাতেই অনেক কথা বলে দিয়েছে। ও  মানুষের জন্য রাজনীতি করবে ঠিক করেছিল। সেই কাজে তার প্রথম চয়েস ছিল বিজেপি। ‌এটাই বলে দিচ্ছে ও কী চেয়েছিল। আর তো কটা মাস। তারপর নির্বাচন। তখন দেখা যাবে।

 

বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ মন্তব্য করেন, মেহেতাবের উপর প্রথম থেকেই চাপ ছিল। পরিবারের অনেকের আপত্তি আছে। বিজেপিতে যোগ দেওয়ার পর থেকেই তৃণমূল চাপ দিচ্ছে।  

 

বন্ধ করুন