এই হল আরজি কর মেডিক্যাল কলেজের আইসোলেশন ওয়ার্ড। দাবি বিজেপির।
এই হল আরজি কর মেডিক্যাল কলেজের আইসোলেশন ওয়ার্ড। দাবি বিজেপির।

পরিচ্ছন্নতার বালাই নেই, RG করের করোনা ওয়ার্ডে দৌড়ে বেড়াচ্ছে বিড়াল, দাবি BJPর

  • ভিডিয়ো ধারণকারী মহিলার দাবি, এটি আরজি কর মেডিক্যাল কলেজের ফিমেল আইসোলেশন ওয়ার্ডের ছবি।

এমআর বাঙুরের পর এবার আরজি কর মেডিক্যাল কলেজের আইসোলেশন ওয়ার্ড। ফের একবার করোনা ওয়ার্ডে অব্যবস্থার অভিযোগ তুলে প্রকাশ্যে এল ভিডিয়ো। ওই ভিডিয়ো বিজেপির রাজ্য শাখার ফেসবুক পেজে পোস্ট করা হয়েছে। যাতে দাবি করা হয়েছে, আরজি কর হাসপাতালের ওই ওয়ার্ডে থাকা নরকে বাস করার সমান।

ভিডিয়োতে দেখা যাচ্ছে, রোগীশূন্য ওয়ার্ডটিতে পর পর সাজানো রেছে বেড। অধিকাংশ বেডের ম্যাট্রেস গোটানো। যে বেডগুলিতে ম্যাট্রেস পাতা রয়েছে তা অপরিষ্কার। গোটা ওয়ার্ডে ছড়িয়ে রয়েছে প্লাস্টিক ও আবর্জনা। শৌচাগারের অবস্থা তো না বলাই ভাল। পরিচ্ছন্নতার বালাই নেই। দৌড়ে বেড়াচ্ছে বিড়াল। নেই জল।

ভিডিয়ো ধারণকারী মহিলার দাবি, এটি আরজি কর মেডিক্যাল কলেজের ফিমেল আইসোলেশন ওয়ার্ডের ছবি। যা থেকে স্পষ্ট অব্যবস্থার মাত্রা। মহিলার দাবি, কোনওক্রমে ওয়ার্ড খালি করে তাঁদের এখানে পাঠিয়ে দিয়েছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

এর আগে চলতি সপ্তাহের শুরুতেই এমআর বাঙুর হাসপাতালের আইসোলেশন ওয়ার্ডের ভিডিয়ো। তাতে দেখা যায়, রোগীরে পাশে শায়িত রয়েছে মৃতদেহ। ভিডিয়ো ধারণকারীর দাবি ছিল, আইসোলেশন ওয়ার্ডে এভাবেই ঘণ্টার পর ঘণ্টা পড়ে রয়েছে দেহ। যা থেকে সংক্রমণ ছড়ানোর সম্ভাবনা রয়েছে। এর পরই বুধবার রাজ্যের করোনা হাসপাতালে মোবাইল ফোন নিষিদ্ধ করে রাজ্য সরকার। সরকারের দাবি, মোবাইল ফোন থেকে সংক্রমণ ছড়ানোর সম্ভাবনা প্রবল।



বন্ধ করুন