বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > ‘‌৯ ঘন্টা জেরার পর অনেকেই আবোল–তাবোল বকে’‌, অভিষেককে কটাক্ষ দিলীপের
দিলীপ ঘোষ (ফাইল ছবি, সৌজন্য পিটিআই)
দিলীপ ঘোষ (ফাইল ছবি, সৌজন্য পিটিআই)

‘‌৯ ঘন্টা জেরার পর অনেকেই আবোল–তাবোল বকে’‌, অভিষেককে কটাক্ষ দিলীপের

  • এই পরিস্থিতিতে আজ বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ অভিষেককে একহাত নিলেন।

ইডি’‌র জেরা শেষ করে নয়াদিল্লিতে দাঁড়িয়ে তৃণমূল কংগ্রেসের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক বলেছিলেন, এখন ২৫ জন বিজেপি বিধায়ক লাইনে দাঁড়িয়ে রয়েছে। তৃণমূল কংগ্রেসে আসবে বলে। তাই জীবন দেব কিন্তু কারও কাছে মাথানত করব না। যা পারে ওরা করে নিক। এই মন্তব্যের পরই বিজেপির অন্দরে জোর চর্চা শুরু হয়ে যায়। কারা এই ২৫ জন বিধায়ক। তৈরি হয় তালিকাও। তাঁদের আতসকাঁচের তলায় রাখা হচ্ছে বলেও খবর। এই পরিস্থিতিতে আজ বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ অভিষেককে একহাত নিলেন।

ঠিক কী বলেছেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি?‌ এদিন দিলীপ ঘোষ বলেন, ‘‌জীবন কোথায় দিচ্ছেন! জীবন নিয়ে তো পালিয়ে গেল নেতারা। ৯ ঘন্টা যদি ইডি জেরা করে তখন লোকে অনেকেই আবল–তাবোল বকে। সবে তো শুরু হয়েছে। যে নেতারা ভুবনেশ্বর গিয়েছিলেন, তাঁদের চেহারাই পাল্টে গিয়েছিল। তৃণমূল কংগ্রেসের অনেক নেতারাই কয়লা, বালি লুট, পাচারের সঙ্গে যুক্ত। ওনাদের রাজত্বকালে কয়লা, বালি, পাথর, লুট হয়েছে গরু–পাচার হয়েছে। একটা দল অফিসিয়ালি এই কাজগুলি করছে, তাদের সব নেতা জড়িত।’‌ উপনির্বাচনের আগে এই পরস্পরের বাক–বিতণ্ডা রাজ্য–রাজনীতিতে উত্তাপ তৈরি করেছে।

কয়লা, গরু–পাচার কাণ্ডে লিঙ্কম্যান তৃণমূল কংগ্রেসের যুব নেতা বিনয় মিশ্র সম্পর্কে দিলীপ বলেন, ‘‌তাঁদের নেতারা বাড়ি ছেড়ে পালাচ্ছেন। গায়েব হয়ে যাচ্ছেন। অন্য দেশের নাগরিকত্ব নিয়ে নিচ্ছেন, কতটা সৎ ছিলেন ওঁরা!’‌ সোমবার ৯ ঘণ্টা ইডির জেরার মুখোমুখি হন অভিষেক। তারপর সেখান থেকে বেরিয়ে তিনি বলেন, ‘‌যা করার আছে করে নিন। তৃণমূল কংগ্রেস কোনও অবস্থাতেই মাথা নোয়াবে না।’‌ নয়াদিল্লিতে ইডি’‌র জামনগরের অফিসে ঢোকার পর চলে ম্যারাথন প্রশ্নোত্তর পর্ব।

অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের ২৫ জন বিধায়কের মন্তব্যে বিজেপির রাজ্য সভাপতি বলেন, ‘‌জানি না ২৫ না ৫০। আমাদের পার্টিতে অনেক নেতা এসে বলেছিলেন একশো আছে দেড়শো আছে। আগে তো ওনাদের বিধায়ক–সাংসদরা ইডি, সিবিআই থেকে বাঁচুক। তারপর আমাদের বিধায়ক সম্পর্কে ভাববেন।’‌ অর্থাৎ দিলীপ ঘোষ সরাসরি এখন ভরসা করছেন কেন্দ্রীয় সংস্থাগুলির উপর বলে মনে করছেন রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকরা।

বন্ধ করুন