বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > ‘একটা উপনির্বাচনে এত মার্জিন, কেউ বোকা নয়’‌, কড়া প্রতিক্রিয়া দিলেন সুকান্ত
সুকান্ত মজুমদার। (ফাইল ছবি, সৌজন্য টুইটার @DrSukantaMajum1)
সুকান্ত মজুমদার। (ফাইল ছবি, সৌজন্য টুইটার @DrSukantaMajum1)

‘একটা উপনির্বাচনে এত মার্জিন, কেউ বোকা নয়’‌, কড়া প্রতিক্রিয়া দিলেন সুকান্ত

  • এই ফলাফলের পর এমনই মন্তব্য করেছেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদার। এভাবে ভোটে জিতেছে বলেই তাঁর দাবি।

উপনির্বাচনের ডার্বি ম্যাচের ফলাফল হয়েছে ৪–০। সেক্ষেত্রে খেলা হবে স্লোগান সার্থক। কিন্তু বিজেপি এই ফলাফলকে মেনে নিতে রাজি নয়। তাদের যুক্তি, ভয় এবং সন্ত্রাস তৈরি করে উপনির্বাচন জিতেছে তৃণমূল কংগ্রেস। এই ফলাফলের পর এমনই মন্তব্য করেছেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদার। এভাবে ভোটে জিতেছে বলেই তাঁর দাবি।

ঠিক কী দাবি করেছেন সুকান্ত?‌ মঙ্গলবার ফলাফল প্রকাশ হওয়া পর তাঁর দাবি, ‘‌রাজ্যে নির্বাচন করার মতো পরিস্থিতি ছিল না। কারণ বিজেপির বহু কর্মী ঘরছাড়া। আর দিনহাটার মার্জিন দেখলে সহজেই বোঝা যায় সেখানে কী হয়েছে।’‌ অর্থাৎ এই ফলাফল জনগণের রায়ের বহিঃপ্রকাশ নয় বলেই তিনি বোঝাতে চেয়েছেন।

এই ৪–০ ফলাফলে কী আপনি হতাশ?‌ উত্তরে বিজেপির রাজ্য সবাপতি বলেন, ‘মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও একা সাংসদ ছিলেন তৃণমূল কংগ্রেসের। সেখান থেকে তিনি ক্ষমতায় পৌঁছেছেন। তাই রাজনীতিতে হতাশা বলে কিছু হয় না। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বোধহয় তখন ২৯ জন বিধায়ক ছিলেন। তাঁর চেয়ে আমরা ভাল জায়গায় আছি। এটা তো প্রাপ্তি।’‌

আজ সকাল থেকে ট্রেন্ড ছিল তৃণমূল কংগ্রেসের দিকে। আর বেলা যত বাড়তে থাকে তৃণমূল কংগ্রেসের ব্যবধান তত বাড়তে থাকে প্রত্যেকটি বিধানসভা কেন্দ্রে। আর পিছিয়ে পড়তে থাকে বিজেপি। দিনের শেষে চার কেন্দ্রেই হেরেছে বিজেপি। এমনকী ধরে রাখতে পারেনি দিনহাটা–শান্তিপুর বিধানসভা কেন্দ্র। এই বিষয়ে বিজেপির রাজ্য সভাপতি বলেন, ‘‌ওখানকার ফলাফলই বলে দিচ্ছে কী হয়েছে। একটা উপনির্বাচনে এত মার্জিন!‌ এক লাখ ৪০ হাজার! কেউ বোকা নয়।’‌

বন্ধ করুন