বাড়ি > বাংলার মুখ > কলকাতা > কেন্দ্রের চাপেই চিকিৎসকদের বিমার অঙ্ক বাড়াতে বাধ্য হয়েছেন মমতা, খোঁচা বিজেপি
ফাইল ছবি
ফাইল ছবি

কেন্দ্রের চাপেই চিকিৎসকদের বিমার অঙ্ক বাড়াতে বাধ্য হয়েছেন মমতা, খোঁচা বিজেপি

স্বাস্থ্যকর্মীদের জন্য ৫০ লক্ষ টাকার বিমা ঘোষণা করেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমণ। মোদী সরকারের এই বিমার সুবিধা যদিও পাবেন না রাজ্যের চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মীরা।

কেন্দ্রের চাপের মুখেই রাজ্যের চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মীদের বিমার অংক বাড়াতে বাধ্য হয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কার্যত এই ভাষাতেই সোমবার আক্রমণ শানালেন বিজেপি নেতারা। বিজেপি সাংসদ স্বপন দাশগুপ্ত ও মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয় টুইটারে একযোগে নিশানা করলেন তৃণমূলের রাজনীতিকে। সঙ্গে জাগিয়ে দিলেন রাজ্যের চিকিৎসকদের ভিতরে থাকা অব্যক্ত ক্ষোভ।

টুইটারে প্রথমে স্বপন দাশগুপ্ত লেখেন, ‘পশ্চিমবঙ্গ সরকার চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মীদের বিমার রাশি বাড়িয়ে ১০ লক্ষ করেছে। কিন্তু কেন্দ্রীয় সরকার ইতিমধ্যে তাঁদের ৫০ লক্ষ টাকা বিমার সুরক্ষা দিয়েছে। সেই সুবিধা গ্রহণ করেছে বহু রাজ্য সরকার। কিন্তু মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আয়ুষ্মান ভারত প্রকল্প চালু না করায় পশ্চিমবঙ্গের মানুষ সেই সুযোগ হারাল।’



স্বপনবাবুর টুইটকে উদ্ধৃত করে বাবুল সুপ্রিয় এর পর লেখেন, ‘মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় মানেই একনায়কতন্ত্র। গোটা বিশ্ব এক দিকে আর অন্য দিকে তিনি। উনি সামনে থেকে লড়ছেন সেটা ভাল কথা। কিন্তু প্রত্যন্ত এলাকার মানুষের এখনো ভগবান ভরসা। যাঁদের রেশন কার্ড নেই বা প্রবীণ নাগরিকরা অনেকেই অসহায় অবস্থায় রয়েছেন।’

বলে রাখি, গত সপ্তাহে রাজ্যের চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মীদের জন্য ৫ লক্ষ টাকার বিমা ঘোষণা করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এর পর স্বাস্থ্যকর্মীদের জন্য ৫০ লক্ষ টাকার বিমা ঘোষণা করেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমণ। মোদী সরকারের এই বিমার সুবিধা যদিও পাবেন না রাজ্যের চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মীরা। যার ফলে চাপে পড়ে যান মুখ্যমন্ত্রী। তার জেরেই বিমার অংক বৃদ্ধির ঘোষণা বলে দাবি বিজেপির।



বন্ধ করুন