বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > ঠান্ডা ঘরে বসে রাজনীতি করে BJP, আমার সমস্যা হচ্ছিল, ফুল বদলে বললেন অর্জুন
রবিবার বিকেলে সাংবাদিক বৈঠকে অর্জুন সিং। নিজস্ব চিত্র

ঠান্ডা ঘরে বসে রাজনীতি করে BJP, আমার সমস্যা হচ্ছিল, ফুল বদলে বললেন অর্জুন

  • সুর চড়িয়ে অর্জুন বলেন, বিজেপি নেতারা এসি ঘরে বসে রাজনীতি করেন। তাঁদের সঙ্গে বাংলার মানুষের কোনও যোগ নেই। বাংলার মানুষের সঙ্গে থাকতে গেলে মাঠে ময়দানে থাকতে হয়। বিজেপি যে ভাবে এগোচ্ছে তাতে মানুষের কল্যাণ সম্ভব নয়।

ঠান্ডা ঘরে বসে ফেসবুকে রাজনীতি করে বাংলার মানুষের পাশে থাকা যায় না। বাংলার মানুষের পাশে থাকতে গেলে মাঠে ময়দানে থাকতে হয়। রবিবার বিকেলে বিজেপি ছেড়ে তৃণমূলে যোগদানের পর প্রথম সাংবাদিক বৈঠকে এই ভাষাতেই পুরনো দলকে আক্রমণ করলেন বারাকপুরের সাংসদ অর্জুন সিং। এদিন কলকাতার ক্যামাক স্ট্রিটে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের দফতরের নীচে এক সাংবাদিক বেঠকে অর্জুনেক সঙ্গে হাজির ছিলেন তৃণমূল নেতা জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক, পার্থ ভৌমিক, রাজ চক্রবর্তীরা।

এদিন অর্জুন বলেন, তৃণমূলের কংগ্রেসের প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে আমি দলের সঙ্গে রয়েছি। মাঝে কিছু ভুল বোঝাবুঝি হয়েছিল। তার পর বারাকপুর থেকে সাংসদ হয়েছি। কিন্তু বিজেপি যে ফেসবুক নির্ভর রাজনীতি করে তাতে আমার কাজ করতে সমস্যা হচ্ছিল। আমরা সংগঠন করা লোক। ফেসবুকে আমরা রাজনীতি করতে পারি না। তাই পুরনো দলে ফেরত এলাম।

এর পর সুর চড়িয়ে অর্জুন বলেন, বিজেপি নেতারা এসি ঘরে বসে রাজনীতি করেন। তাঁদের সঙ্গে বাংলার মানুষের কোনও যোগ নেই। বাংলার মানুষের সঙ্গে থাকতে গেলে মাঠে ময়দানে থাকতে হয়। বিজেপি যে ভাবে এগোচ্ছে তাতে মানুষের কল্যাণ সম্ভব নয়। তাই দিনে দিনে রাজ্যে বিজেপির প্রভাব কমছে।

গত কয়েক সপ্তাহ ধরেই দলবদলের ইঙ্গিত দিচ্ছিলেন অর্জুন। পাটশিল্পের প্রতি কেন্দ্রের বঞ্চনা নিয়ে সরব হয়েছিলেন বিজেপি সাংসদ। তার পর কেন্দ্রীয় মন্ত্রী ও সচিবদের সঙ্গে একাধিক বৈঠক হলেও অর্জুনের মতি বদলায়নি। রবিবার বিকেলে পুরনো দল তৃণমূলে নাম লেখালেন তিনি।

 

বন্ধ করুন