বাড়ি > বাংলার মুখ > কলকাতা > তপসিয়ায় নিজের ঘর থেকে উদ্ধার যুবকের রক্তাক্ত দেহ
প্রতীকি ছবি
প্রতীকি ছবি

তপসিয়ায় নিজের ঘর থেকে উদ্ধার যুবকের রক্তাক্ত দেহ

  • পরিবারের সদস্যরা জানিয়েছেন, অভিজিতের মাথায় ছিল ভারী অস্ত্রের আঘাতের চিহ্ন। সেখান থেকেই রক্তক্ষরণে ভেসে গিয়েছিল গোটা বিছানা।

সাত সকালে পূর্ব কলকাতার তপসিয়ায় নিজের ঘর থেকে যুবকের রক্তাক্ত দেহ উদ্ধার ঘিরে চাঞ্চল্য। মৃতের নাম অভিজিৎ রজক। তপসিয়ার বামনপাড়ায় পরিবারের সঙ্গে থাকতেন তিনি। কাজ করতেন স্থানীয় একটি হোটেলে। 

পরিবারের তরফে জানানো হয়েছে, মঙ্গলবার সকালে পরিবারের সদস্যরা ঘুম থেকে উঠে দেখতে পান, অভিজিৎ যে ঘরে ঘুমান তার দরজা খোলা। ভিতরে ২টি সাইকেল থাকে। সেদুটি গায়েব। ডাকাডাকি করেও অভিজিতের সাড়া না পাওয়ায় ভিতরে ঢোকেন তাঁরা। দেখেন চাদর মুড়ি দিয়ে ঘুমাচ্ছেন অভিজিৎ। চাদর সরাতেই দেখা যায় রক্তাক্ত দেহ। 

পরিবারের সদস্যরা জানিয়েছেন, অভিজিতের মাথায় ছিল ভারী অস্ত্রের আঘাতের চিহ্ন। সেখান থেকেই রক্তক্ষরণে ভেসে গিয়েছিল গোটা বিছানা।

এর পরই খবর যায় পুলিশে। তপসিয়া থানার পুলিশ এসে দেহ উদ্ধার করে। ঘটনায় খুনের মামলা রুজু করেছে পুলিশ। 

পুলিশের অনুমান, অভিজিৎকে পরিকল্পনামাফিক খুন করা হয়েছে। কারণ সাইকেল চুরি করতে গিয়ে কেউ খুন করবে এমন সম্ভাবনা কম। সম্ভবত তদন্তকারীদের বিভ্রান্ত করতে সাইকেলগুলি নিয়ে গিয়েছে খুনিরা। ঘটনায় ৩-৪ জন যুক্ত থাকতে পারে বলে অনুমান পুলিশের। 

 

বন্ধ করুন