বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > নোবেল পুরস্কারের জন্য মোদীর নাম বিবেচনা করা উচিত, দাবি BSE-র শীর্ষ কর্তার

নোবেল পুরস্কারের জন্য মোদীর নাম বিবেচনা করা উচিত, দাবি BSE-র শীর্ষ কর্তার

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী  (ANI/ PIB)

নরেন্দ্র মোদীর ঘোষিত প্রধানমন্ত্রী গরিব কল্যাণ অন্ন যোজনার সঙ্গে রাষ্ট্রসংঘের বিশ্ব খাদ্য কর্মসূচির তুলনা করেন বম্বে স্টক এক্সচেঞ্জের সিইও আশিস চৌহান।

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর নাম নোবেল পুরস্কারের জন্য বিবেচনা করা উচিত, এমনই দাবি করলেন বম্বে স্টক এক্সচেঞ্জের সিইও আশিস চৌহান। কোভিড অতিমারি চলাকালীন সরকারের বিভিন্ন প্রকল্পের খতিয়ান তুলে ধরে এই দাবি করেন আশিস চৌহান। তিনি আরও বলেন, ‘একজন ভারতীয় নাগরিক হিসেবে দেশের দরিদ্রদের মানবিক সহায়তায় আমাদের গর্বিত হওয়া উচিত।’ (আরও পড়ুন: মোদীর বক্তৃতার প্রশংসায় মমতা! তবু এক টেবিলে বসে খেলেন না প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে)

আশিস চৌহান বলেন, ‘কোভিডের সময় ৮০ কোটি মানুষকে বিনামূল্যে রেশন এবং আরও সমস্ত সুবিধা দেওয়ার জন্য আমরা সরকারের কাছে কৃতজ্ঞ। আজও এই কাজ অবিশ্বাস্য বলে মনে হয়, আমরা বা বিশ্বের কেউই এটা বিশ্বাস করে নিতে পারেনি যে এরমটা হতে পারে।’ মোদীর প্রকল্পের সাথে তিনি রাষ্ট্রসংঘের বিশ্ব খাদ্য কর্মসূচির (ডব্লিউএফপি) তুলনা করেন। উল্লেখ্য, গত বছর ডব্লিউএফপি খাদ্য বণ্টনের প্রচেষ্টার জন্য নোবেল পেয়েছিল।

শুক্রবার কলকাতার ভারতীয় ইনস্টিটিউটের সমাবর্তন অনুষ্ঠানে বক্তৃতা দিতে গিয়ে আশিস চৌহান বলেন যে ৮০ কোটি মানুষকে উপকৃত করেছে কেন্দ্রের বিনামূল্য রেশন প্রকল্প। যা ‘নোবেলজয়ী রাষ্ট্রসংঘের বিশ্ব খাদ্য কর্মসূচির কাজের থেকে অনেক বড়।’ তিনি বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী গরিব কল্যাণ অন্ন যোজনা নামে পরিচিত বিনামূল্যের রেশন প্রকল্প ভারতের দরিদ্র নাগরিকদের বিশৃঙ্খলা ও দুর্দশা থেকে বাঁচিয়েছে। আমরা চিন সহ অন্যান্য দেশে এই সময় বিশৃঙ্খলা ছড়িয়ে পড়তে দেখছি। পুরো ইউরোপ বা আমেরিকা, মেক্সিকো ও কানাডা বা সমগ্র দক্ষিণ আমেরিকার দেশগুলোর চেয়ে দুই বছরের বেশি সময় ধরে বিনামূল্যে খাবার দেওয়া হয়েছে ভারতে।’

বন্ধ করুন