বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > উদয়নের অভিযোগ ফুৎকারে উড়িয়ে দিল BSF
প্রতীকি ছবি
প্রতীকি ছবি

উদয়নের অভিযোগ ফুৎকারে উড়িয়ে দিল BSF

  • বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, ‘পেশাদার বাহিনী হিসাবে বিএসএফ সব সময় নিয়ম মেনে কাজ করে। মহিলাদের তল্লাশির সময় মহিলা জওয়ানদের উপস্থিতি বাধ্যতামূলক।

বিধানসভার অন্দরে বিএসএফ সম্পর্কে করা তৃণমূল বিধায়ক উদয়ন গুহর মন্তব্য ভিত্তিহীন বলে উড়িয়ে দিল বাহিনী। সীমান্তরক্ষী বাহিনীর তরফে প্রকাশিত বিবৃতিতে একথা জানানো হয়েছে। বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, ‘পেশাদার বাহিনী হিসাবে যাবতীয় নিয়ম মেনে কাজ করে বিএসএফ।’

মঙ্গলবার পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভায় বিএসএফের এক্তিয়ার বৃদ্ধির বিরোধিতায় তৃণমূলের প্রস্তাব পাশ হয়। তার আগে বিতর্কে কোচবিহারের দিনহাটার নবনির্বাচিত বিধায়ক উদয়ন গুহ দাবি করেন, ‘সীমান্তে মহিলাদের গোপনাঙ্গে হাত দিয়ে তল্লাশি করে বিএসএফ।’ এর পরই বিধানসভায় তুমুল হট্টগোল শুরু হয়ে যায়। বিধানসভার অন্দরে নির্বাচিত জনপ্রতিনিধির এহেন মন্তব্যে শোরগোল পড়ে যায়। কী ভাবে তিনি নিজের দেশের বাহিনী সম্পর্কে এমন মন্তব্য করতে পারেন তা নিয়েও প্রশ্ন ওঠে। ওই বক্তব্যের কয়েক ঘণ্টার মধ্যে বিবৃতি জারি করে অভিযোগ অস্বীকার করে বিএসএফ।

বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, ‘পেশাদার বাহিনী হিসাবে বিএসএফ সব সময় নিয়ম মেনে কাজ করে। মহিলাদের তল্লাশির সময় মহিলা জওয়ানদের উপস্থিতি বাধ্যতামূলক। ফলে মহিলাদের অশ্লীলভাবে তল্লাশির যে অভিযোগ উঠেছে তা সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন।’

বিএসএফের এক্তিয়ার বৃদ্ধির বিরোধিতায় এর আগে প্রস্তাব এনেছিল পঞ্জাব সরকার। তবে সেখানে এমন কোনও মন্তব্য কেউ করেননি। তবে উদয়নবাবু বিধায়ক হিসাবে এই মন্তব্য বিধানসভার ভিতরে করায় তাঁর বিরুদ্ধে আইনি পদক্ষেপ করার সুযোগ নেই। তবে স্বাধিকার ভঙ্গের অভিযোগ আনতে পারেন কেউ।

বন্ধ করুন