বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > বাবুঘাট থেকে বাস স্ট্যান্ড সরানোর পক্ষে নন মালিকরা, আগামীকাল রাজ্যের সঙ্গে বৈঠক
বাবুঘাট বাসস্ট্যান্ড । ফাইল ছবি।

বাবুঘাট থেকে বাস স্ট্যান্ড সরানোর পক্ষে নন মালিকরা, আগামীকাল রাজ্যের সঙ্গে বৈঠক

  • বেসরকারি বাস মালিকদের দাবি, সাঁতরাগাছিতে বাসস্ট্যান্ড তৈরির জন্য উপযুক্ত পরিকাঠামোর নেই। তাদের বক্তব্য, বর্তমানে বাবুঘাট থেকে যে সমস্ত দূরপাল্লার বাস ছাড়ে সাঁতরাগাছিতে গিয়ে সেই সমস্ত বাস যাত্রীদের পক্ষে ধরা সম্ভব নয়।

বাবুঘাট থেকে এখনই বাসস্ট্যান্ড সরানোর পক্ষে নন বেসরকারি বাস মালিকরা। গত ১১ এপ্রিল রাজ্য সরকার বিজ্ঞপ্তি জারি করে বাবুঘাট থেকে বাস স্ট্যান্ড সরিয়ে সাঁতরাগাছিতে করার নির্দেশ দিয়েছিল। ১৪ দিনের মধ্যে তা সরানোর নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু, আপাতত সরকারি নির্দেশে বাস্তব সম্মত কোনও যুক্তি খুঁজে পাচ্ছেন না বেসরকারি বাস মালিকরা। সেই কারণে এখনই তারা বাস স্ট্যান্ড বাবুঘাট থেকে সরিয়ে নিয়ে যেতে চাইছেন না।

বেসরকারি বাস মালিকদের দাবি, সাঁতরাগাছিতে বাসস্ট্যান্ড তৈরির জন্য উপযুক্ত পরিকাঠামোর নেই। তাদের বক্তব্য, বর্তমানে বাবুঘাট থেকে যে সমস্ত দূরপাল্লার বাস ছাড়ে সাঁতরাগাছিতে গিয়ে সেই সমস্ত বাস যাত্রীদের পক্ষে ধরা সম্ভব নয়। পাশাপশি, সেখান থেকে কলকাতায় আসাও সম্ভব নয়। বর্তমানে বাবুঘাট থেকে দূরপাল্লার বাসের পাশাপাশি স্বল্প দূরত্বের বাসও যাতায়াত করে। বেসরকারি বাস মালিকরা মনে করছেন, জ্বালানি তেলের অস্বাভাবিক মূল্যবৃদ্ধির ফলে বাবুঘাট থেকে সাঁতরাগাছি পর্যন্ত বাস চালিয়ে অন্য রুটের বাসের সঙ্গে প্রতিযোগিতায় নামে কেউ লাভবান হবে না। এনিয়ে আগামীকাল ফের রাজ্য সরকারের সঙ্গে বৈঠকে বসবেন বেসরকারি বাস মালিকরা।

উল্লেখ্য, সাঁতরাগাছিতে অনেক দিন ধরে একটি বাস টার্মিনাস তৈরি হয়ে পড়ে রয়েছে। এদিকে, পরিবেশ সংক্রান্ত মামলায় অনেক আগেই বাবুঘাট থেকে বাস স্ট্যান্ড সরিয়ে নিয়ে যাওয়ার নির্দেশ দিয়েছে আদালত। মূলত ময়দান, ভিক্টোরিয়া মেমোরিয়াল প্রভৃতি এলাকায় দূষণের কারণ হিসেবে বাবুঘাট বাসস্ট্যান্ডকেই দায়ী করা হয়েছে। সেই কারণে এই বাস স্ট্যান্ড সরিয়ে দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। বেসরকারি বাস মালিকদের সংগঠন জয়েন্ট কাউন্সিল অফ সিন্ডিকেট, ওয়েস্টবেঙ্গল বাস-মিনিবাস ওনার্স অ্যাসোসিয়েশন, বেঙ্গল বাস সিন্ডিকেট রাজ্যের এই নির্দেশিকার বিরোধিতা জানিয়েছে। এখন শেষ পর্যন্ত বাবুঘাট থেকে বাস স্ট্যান্ড সরানো হবে কিনা তা আগামীকাল বোঝা যাবে।

বন্ধ করুন