বাড়ি > বাংলার মুখ > কলকাতা > বেঙ্গালুরুতে স্ত্রীকে খুন করে বিমানে কলকাতায় ব্যবসায়ী, ফুলবাগানে বৃদ্ধা খুনে নয়া তথ্য
এই আবাসনেই শাশুড়িকে খুন করেন ব্যবসায়ী (ছবি সৌজন্য সংগৃহীত)
এই আবাসনেই শাশুড়িকে খুন করেন ব্যবসায়ী (ছবি সৌজন্য সংগৃহীত)

বেঙ্গালুরুতে স্ত্রীকে খুন করে বিমানে কলকাতায় ব্যবসায়ী, ফুলবাগানে বৃদ্ধা খুনে নয়া তথ্য

  • ব্যবসায়ীর ১০ বছরের এক সন্তানও আছে।

বেঙ্গালুরুর ফ্ল্যাটে স্ত্রীকে খুন করে বিমানে করে কলকাতায় আসেন। তারপর গুলি করে শাশুড়িকে হত্যা করেন বয়স ৪২-এর এক ব্যবসায়ী। শেষে নিজেও আত্মঘাতী হন। ফুলবাগান থানার অভিজাত আবাসনে বৃদ্ধা খুনের ঘটনায় পুলিশের হাতে নয়া তথ্য উঠে গেল।

ব্যবসায়ীর শাশুড়ির ঘর থেকে একটি সুইসাইড নোট পাওয়া গিয়েছে। তা থেকে পুলিশ জানতে পেরেছে, কলকাতায় আসার আগে বেঙ্গালুরুতে স্ত্রীকে (৪০) খুন করেছেন তিনি। বিষয়টি নিয়ে বেঙ্গালুরু পুলিশের সঙ্গে যোগাযোগ করে কলকাতা পুলিশ। ওয়াইটফিল্ড থানার আওতায় একটি ফ্ল্যাট থেকে ব্য়বসায়ীর স্ত্রীর দেহ উদ্ধার করা হয়। সেই সময় তাঁর দেহে পচন ধরতে শুরু করেছে। বেঙ্গালুরু পুলিশের প্রাথমিক অনুমান, ২৪ থেকে ৪৮ ঘণ্টা আগে স্ত্রীকে গলা টিপে খুন করেছেন ওই ব্যবসায়ী।

এদিকে, সোমবার বিকেল সাড়ে পাঁচটা নাগাদ ফুলবাগানের অভিজাত আবাসনে যান ব্যবসায়ী। সম্পত্তি সংক্রান্ত বিষয়ে ৭০ বছরের শ্বশুরের সঙ্গে বচসায় জড়িয়ে পড়েন। বচসা চলাকালীন বছর ৬৫-র শাশুড়িকে লক্ষ্য করে গুলি চালান ওই ব্যবসায়ী। সেই সময় কোনওভাবে ফ্ল্যাটের দরজা বন্ধ করে বাইরে বেরিয়ে যান বৃদ্ধ। প্রতিবেশীর ফ্ল্যাট থেকে পুলিশে ফোন করেন। কিছুক্ষণ পর পুলিশ এসে ব্য়বসায়ী এবং তাঁর শাশুড়ির দেহ উদ্ধার করে।

প্রাথমিক তদন্তে পুলিশের ধারণা, অন্তত চার রাউন্ড গুলি চালিয়েছেন ওই ব্যবসায়ী। যে বন্দুক দিয়ে শাশুড়িকে খুন করেছেন, তা দিয়েই আত্মঘাতী হন তিনি। কলকাতা পুলিশের এক শীর্ষ কর্তা বলেন, ‘বিমানে করে সোমবার কলকাতায় ফেরেন ওই ব্যক্তি। তদন্ত চলছে।’

পাশাপাশি তিনি জানান, বছরদুয়েক ধরে ব্যবসায়ী এবং তাঁর স্ত্রীর মধ্যে বিবাহবিচ্ছেদের মামলা চলছিল। তাঁদের ১০ বছরের এক সন্তানও আছে। সে নিরাপদ স্থানে আছে।

বন্ধ করুন