বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > ‘বাংলার গর্ব মেট্রো’, ২০২১ সালের ইস্ট-ওয়েস্ট দৌড়ানোর জন্য বর্ধিত বাজেটে অনুমোদন
‘বাংলার গর্ব মেট্রো’, ২০২১ সালের ইস্ট-ওয়েস্ট দৌড়ানোর জন্য বর্ধিত বাজেটে অনুমোদন (ছবি সৌজন্য এএনআই)
‘বাংলার গর্ব মেট্রো’, ২০২১ সালের ইস্ট-ওয়েস্ট দৌড়ানোর জন্য বর্ধিত বাজেটে অনুমোদন (ছবি সৌজন্য এএনআই)

‘বাংলার গর্ব মেট্রো’, ২০২১ সালের ইস্ট-ওয়েস্ট দৌড়ানোর জন্য বর্ধিত বাজেটে অনুমোদন

  • প্রায় ২৫ বছর পর কলকাতায় নয়া কোনও ভূগর্ভস্থ স্টেশন চালু হয়েছে।

ইস্ট-ওয়েস্ট মেট্রোর বর্ধিত বাজেটে অনুমোদন দিল কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভা। একইসঙ্গে আগামী বছর ডিসেম্বরের মধ্যে সেই প্রকল্প শেষ করার লক্ষ্যমাত্রা নেওয়া হয়েছে।

বুধবার রেলমন্ত্রী পীযূষ গোয়েল জানান, প্রকল্পের জন্য বরাদ্দ বাড়িয়ে ৮,৫৭৫ কোটি টাকার করার প্রস্তাবে অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। বছর ১১ আগে ইস্ট-ওয়েস্ট প্রকল্পের জন্য প্রাথমিকভাবেে ৪,৮৭৪ কোটি টাকার খরচ ধরা হয়েছিল। কিন্তু দীর্ঘসূত্রতার জেরে তা বেড়ে প্রায় দ্বিগুণ হয়েছে। 

কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভার অনুমোদনের পর কলকাতা মেট্রোর তরফে একাধিক টুইট করা হয়। তাতে ইস্ট-ওয়েস্ট মেট্রোর বিভিন্ন সুবিধা তুলে ধরা হয়। তাৎপর্যপূর্ণভাবে সেই টুইটগুলির সঙ্গে #বাংলার গর্ব মেট্রো হ্যাশট্যাগ ব্যবহার করা হয়। একইসঙ্গে ইস্ট-ওয়েস্ট প্রকল্পে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর উন্নয়নের ‘দান’ হিসেবে তুলে ধরা হয়। একটি ভিডিয়োয় পোস্ট করে জানানো হয়, ইস্ট-ওয়েস্ট মেট্রোর ফলে প্রধানমন্ত্রীর ‘আত্মনির্ভর ভারত’ এবং ‘লোকাল ফর ভোকাল’-এর স্বপ্নকে পূরণ করছে। সেই ভিডিয়োয় আবার যে মহিলার কণ্ঠস্বর শোনা যাচ্ছিল, তিনি হিন্দিতে বলছিলেন। 

গত ৪ অক্টোবরই ফুলবাগান মেট্রো স্টেশনে উদ্বোধন করেছিলেন রেলমন্ত্রী। ভিডিয়ো স্ক্রিনে সবুজ পতাকা নেড়ে প্রায় ২৫ বছর পর কলকাতায় নয়া কোনও ভূগর্ভস্থ স্টেশন চালু করেন। পরদিন থেকে শুরু হয় যাত্রী পরিষেবা।

বন্ধ করুন