বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > Calcutta HC on Job Opportunity: অল্প সংখ্যক শূন্য পদের কারণে আজকাল চাকরির সুযোগও সীমিত: কলকাতা হাই কোর্ট
কলকাতা হাইকোর্ট। ফাইল ছবি (HT_PRINT)

Calcutta HC on Job Opportunity: অল্প সংখ্যক শূন্য পদের কারণে আজকাল চাকরির সুযোগও সীমিত: কলকাতা হাই কোর্ট

  • বিচারপতি অনিরুদ্ধ রায়ের একক বেঞ্চ পর্যবেক্ষণ করে, ‘সীমিত সংখ্যক শূন্য পদের কারণে আজকাল চাকরির সুযোগ সীমিত।’

সীমিত সংখ্যক শূন্য পদের কারণে আজকাল চাকরির সুযোগ সীমিত। এমনই পর্যবেক্ষণ কলকাতা হাই কোর্টের। সম্প্রতি রেলওয়ে প্রোটেকশন ফোর্সের একজন কনস্টেবলকে চাকরিতে পুনর্বহাল করার নির্দেশ দেওয়ার সময় এই পর্যবেক্ষণ করে উচ্চ আদালত। (আরও পড়ুন: জয়পুরে অভাবনীয় দৃশ্য, শিল্পীদের সঙ্গে নেচে উঠলেন শেখ হাসিনা! দেখুন ভিডিয়ো)

বিচারপতি অনিরুদ্ধ রায়ের একক বেঞ্চ অবশ্য স্পষ্ট করে জানিয়েছেন যে চাকরির সুযোগের অভাবের কারণে সহানুভূতির বসে প্রার্থীদের চাকরি দেওয়া যায় না। গত ৬ সেপ্টেম্বর দেওয়া নির্দেশে হাই কোর্ট পর্যবেক্ষণ করে, ‘সীমিত শূন্য পদের কারণে কর্মসংস্থানের সুযোগও আজকাল দুর্লভ। তবে এটা সত্য যে যদি সেই চাকরি করার যোগ্যতা কারও না থাকে তাহলে সুযোগের অভাবের কারণে কাউকে সহানুভূতির বসে চাকরি দেওয়া যায় না।’ কিন্তু আদালত যোগ করেছে যে, সরকারি চাকরিতে নিয়োগ দেওয়ার বিষয়টি তথ্যের উপর নির্ভর করবে।

আরও পড়ুন: ‘অন্তর্বাস কিনতে দিল্লি গিয়েছিলাম’, আজব মন্তব্য মুখ্যমন্ত্রীর ভাইয়ের

আদালতের তরফে বলা হয়, ‘নিজেকে উন্নত করার, অতীত থেকে শিক্ষা নেওয়ার এবং জীবনে এগিয়ে যাওয়ার একটি সুযোগ প্রাপ্য প্রতিটি ব্যক্তির। তবে সেই নির্দিষ্ট মামলার বাস্তব পরিস্থিতির উপর অনেক কিছু নির্ভর করবে।’ আবেদনকারীর অভিযোগ, ২০১৫ সালে সব পরীক্ষা পাশ করার পর তাঁকে নিয়োগ করা হয়েছিল আরপিএফ-এ। তবে কয়েক মাসের মধ্যে কর্তৃপক্ষ জানতে পারে যে সেই আবেদনকারীর বিরুদ্ধে একটি অপরাধের মামলা চলছে। এর প্রেক্ষিতে ২০১৫ সালের জুলাই মাসে তাগৃকে গ্রেফতার কর হবে। যদিও আবেদনকারীর দাবি, তিনি সেই অপরাধমূক মামলা থেকে বেকসুর খালাশ পেয়েছিলেন। দীর্ঘ কয়েক বছরের আইনি লড়াইয়ের পর সুপ্রিম কোর্ট সেই জওয়ানকে তাঁর কাজ ফিরিয়ে দিল। আদালতের তরফে আরও স্পষ্ট করে দেওয়া হয় যে আবেদনকারী যে সময় তাজ করেননি, সেই সময়কালের বকেয়া বেতন এবং আর্থিক সুবিধার তাঁকে মেটাতে হবে বাহিনীকে।

বন্ধ করুন