বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > আদালতে ফের ধাক্কা খেল রাজ্য, শিক্ষক বদলিতে স্থগিতাদেশ জারি করল হাইকোর্ট
কলকাতা হাইকোর্ট (ফাইল ছবি, সৌজন্য পিটিআই)
কলকাতা হাইকোর্ট (ফাইল ছবি, সৌজন্য পিটিআই)

আদালতে ফের ধাক্কা খেল রাজ্য, শিক্ষক বদলিতে স্থগিতাদেশ জারি করল হাইকোর্ট

  • গত ২৪ অগাস্ট বদলির প্রতিবাদে বিকাশ ভবনের সামনে যে ৫ শিক্ষক বিষপান করেছিলেন তার অন্যতম অনিতাদেবী। তাঁকে হুগলির বলাগড় থেকে মালদায় বদলি করা হয়েছে। এদিন আদালতের নির্দেশ রাজ্যের কাছে এক বড় ধাক্কা।

SSK শিক্ষক বদলিতে স্থগিতাদেশ দিল হাইকোর্ট। মঙ্গলবার রাজ্যের কাছে কোন নিয়ম ও নীতি মেনে বদলি করা হয়েছে তা জানতে চেয়েছিল আদালত। বুধবার রাজ্য তার কোনও সন্তোষজনক জবাব দিতে না পারায় আগামী ৩০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত মামলাকারী শিক্ষকের বদলির নির্দেশে স্থগিতাদেশ জারি করেছেন বিচারপতি সৌগত ভট্টাচার্য।

বদলির সিদ্ধান্তের বিরোধিতা করে কলকাতা হাইকোর্টে মামলা করেছিলেন শিক্ষক অনিতা নাথ। সেই মামলার শুনানিতে মঙ্গলবার আদালত রাজ্যকে প্রশ্ন করে, ‘রাজ্যে অস্থায়ী শিক্ষকদের বদলির কোনও নিয়ম নেই। শুধুমাত্র ক্ষমতাবলেই কি এই বদলি? বদলির ক্ষেত্রে কোনও নিয়ম – নীতি মানা হয়নি। কোন নিয়ম মেনে বদলি করা হয়েছে তা বুধবারের মধ্যে আদালতকে জানাতে হবে।’

এদিনের শুনানিতে আদালতের প্রশ্নের জবাব দিতে পারেনি রাজ্য। শুধু জানানো হয়েছে, বদলি নয়, স্থানান্তর (Relocate) করা হয়েছে ওই শিক্ষককে। কিন্তু আদালত এই যুক্তি গ্রহণ করেনি। এর পর সোমবার মামলাটির শুনানির জন্য সময় চান রাজ্যের আইনজীবী। কিন্তু সেই দাবি খারিজ করে ৩০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত বদলিতে স্থগিতাদেশ দিয়েছে আদালত।

গত ২৪ অগাস্ট বদলির প্রতিবাদে বিকাশ ভবনের সামনে যে ৫ শিক্ষক বিষপান করেছিলেন তার অন্যতম অনিতাদেবী। তাঁকে হুগলির বলাগড় থেকে মালদায় বদলি করা হয়েছে। এদিন আদালতের নির্দেশ রাজ্যের কাছে এক বড় ধাক্কা। শিক্ষক আন্দোলনের নেতাদের দাবি, মাত্র ১০ হাজার টাকা বেতন পান অস্থায়ী শিক্ষকরা। স্থায়ীকরণ ও বেতনবৃদ্ধির দাবিতে আন্দোলন করছেন তাঁরা। তাই প্রতিহিংসাপরায়ণ হয়ে কোনও নিয়মনীতি না মেনে বদলি করেছে শিক্ষা দফতর। এদিন আদালতের নির্দেশে তা স্পষ্ট হয়ে গেল।

 

বন্ধ করুন