বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > Amta bomb blast: আমতায় তৃণমূলের কার্যালয়ে বিস্ফোরণে মৃত্যুর মামলায় এনআইকে যুক্ত করল হাইকোর্ট
কলকাতা হাইকোর্ট। ফাইল ছবি (HT_PRINT)

Amta bomb blast: আমতায় তৃণমূলের কার্যালয়ে বিস্ফোরণে মৃত্যুর মামলায় এনআইকে যুক্ত করল হাইকোর্ট

  • চন্দ্রপুর এলাকার তৃণমূলের কার্যালয়ে বিস্ফোরণ ঘটেছিল চলতি বছরের ২৩ ফেব্রুয়ারি। সেই ঘটনায় গুরুতর জখম হয়েছিলেন মহরম আলি। আশঙ্কাজনক অবস্থায় মহরমকে হাসপাতালে ভর্তি করা হলে পাঁচ দিন পর তার মৃত্যু হয়। ঘটনায় থানায় অভিযোগ খুনের অভিযোগ দায়ের করেছিলেন মহরমের বাবা সরবত আলি।

আমতার চন্দ্রপুরে তৃণমূলের দলীয় কার্যালয়ে বিস্ফোরণ হয়ে মৃত্যু হয়েছিল স্থানীয় বাসিন্দা মহরম আলির। সেই মামলায় কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা এনআইএ’কে যুক্ত করল কলকাতা হাইকোর্ট। এই ঘটনায় প্রথম থেকেই এনআইএ তদন্তের দাবী করে আসছে মৃত মহরমের পরিবার। আজ মামলার শুনানি ছিল বিচারপতি রাজশেখর মান্থার এজলাসে। মামলার শুনানিতে এনআইকে যুক্ত করার নির্দেশ দিয়েছেন বিচারপতি।

চন্দ্রপুর এলাকার তৃণমূলের কার্যালয়ে বিস্ফোরণ ঘটেছিল চলতি বছরের ২৩ ফেব্রুয়ারি। সেই ঘটনায় গুরুতর জখম হয়েছিলেন মহরম আলি। আশঙ্কাজনক অবস্থায় মহরমকে হাসপাতালে ভর্তি করা হলে পাঁচ দিন পর তার মৃত্যু হয়। ঘটনায় থানায় অভিযোগ খুনের অভিযোগ দায়ের করেছিলেন মহরমের বাবা সরবত আলি। কিন্তু পুলিশ প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা না নেওয়ায় তিনি কলকাতা হাইকোর্টের দ্বারস্থ হন। সরবতের অভিযোগ তার ছেলেকে তৃণমূল পার্টি অফিসে ডেকে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে বোমা বাধা হচ্ছিল। তখনই বোমা ফেটে মৃত্যু হয় মহরমের। সরবতের আরও অভিযোগ, প্রথমে থানায় গেলে পুলিশ তার অভিযোগ নিতে চাইনি উল্টে তাকে ফাঁসিয়ে দেওয়ার হুমকি দেওয়া হয়।

এরপর কলকাতা হাইকোর্টের দ্বারস্থ হন সরবত। তিনি ছেলের মৃত্যুতে এনআইএ তদন্তের দাবি জানান। আজ সেই মামলা ওঠে বিচারপতি রাজশেখর মান্থার এজলাসে। মামলাটি কেন এনআইএ’র হাতে তুলে দেওয়া হবে না তার ব্যাখ্যা জেলার পুলিশ সুপারের কাছে আগেই চেয়েছিলেন বিচারপতি। আর আজ মামলায় এনআইএকে যুক্ত করলেন। এখন কলকাতা হাইকোর্ট এনআইএ’র হাতে তদন্তভার তুলে দেবে কিনা সে দিকে চেয়ে রয়েছে পরিবার।

বন্ধ করুন