বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > রাজ্যে বিনামূল্যে ভ্যাকসিন পাঠান নিয়ে কী ভাবছে কেন্দ্র? প্রশ্ন কলকাতা হাইকোর্টের
কলকাতা হাইকোর্ট (ফাইল ছবি, সৌজন্য পিটিআই)
কলকাতা হাইকোর্ট (ফাইল ছবি, সৌজন্য পিটিআই)

রাজ্যে বিনামূল্যে ভ্যাকসিন পাঠান নিয়ে কী ভাবছে কেন্দ্র? প্রশ্ন কলকাতা হাইকোর্টের

  • বিনামূল্যে ভ্যাকসিন দেওয়ার বিষয়ে কেন্দ্রের মতামত জানতে চাইল কলকাতা হাইকোর্ট।

পশ্চিমবঙ্গে করোনা টিকা পাঠাতে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হল কেন্দ্রীয় সরকারকে। ভ্যাকসিন সংক্রান্ত এই জনস্বার্থ মামলার প্রেক্ষিতে চলা শুনানি চলাকালীন এই নির্দেশ দেয় কলকাতা হাইকোর্ট। পাশাপাশি বিনামূল্যে ভ্যাকসিন দেওয়ার বিষয়ে কেন্দ্রের মতামত জানতে চাইল কলকাতা হাইকোর্ট। বৃহস্পতিবার হাইকোর্টের কার্যকারী প্রধান বিচারপতি রাজেশ বিন্দাল ও বিচারপতি অরিজিৎ বন্দ্যোপাধ্যায়ের ডিভিশন বেঞ্চ আগামী সোমবারের মধ্যে এ ব্যাপারে কেন্দ্রকে জানানোর নির্দেশ দিয়েছে।

করোনার অতিমারী ঠেকাতে সবাইকে বিনামূল্যে করোনার ভ্যাকসিন দেওয়া, পর্যাপ্ত অক্সিজেনের ব্যবস্থা ও অক্সিজেনের কালোবাজারি বন্ধ করাসহ প্রয়োজনীয় ওষুধের কালোবাজারি বন্ধ করার দাবিতে কলকাতা হাইকোর্টে একটি জনস্বার্থ মামলা করেছিলেন প্রখ্যাত চিকিৎসক তথা সিপিএম নেতা ফুয়াদ হালিম। সেই মামলার প্রেক্ষিতে এই নির্দেশ দিয়েছে কলকাতা হাইকোর্ট।

প্রসঙ্গত, বিধানসভা নির্বাচনের প্রচার চলাকালীন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় দাবি করেছিলেন, তিনি টিকা কিনতে চাইলেও কেন্দ্র অনুমতি দিচ্ছে না। এরপর রাজ্যগুলিকে টিকা কেনার অনুমতি দেওয়া হলেও টিকার দাম নিয়ে বিতর্ক তৈরি হয়। দেখা যায়, কেন্দ্রের থেকে অনেক বেশি টাকা দিয়ে টিকা কিনতে হবে রাজ্যগুলিকে। এরপর কেন্দ্রের অনুরোধএ কিছুটা দাম কমালেও রাজ্য-কেন্দ্র সামঞ্জস্য আসেনি। এই আবহে মমতা ঘোষণা করেছিলেন যে রাজ্যের সকলকে তিনি বিনামূল্যে টিকা দেবেন। ভোটে জয়ের পরও মুখ্যমন্ত্রী রাজ্যবাসীকে বিনামূল্যে ভ্যাকসিন দেবেন বলে ঘোষণা করেছিলেন এবং সেই ব্যাপারে ইতিমধ্যে তিনি কেন্দ্রের কাছে দরবারও করেছেন। পাশাপাশি সব দেশবাসীকে বিনামূল্যে টিকা দেওয়ার দাবিও তোলেন তিনি।

এদিকে অপর একটি জনস্বার্থ মামলায় রাজ্যে যাতে পর্যাপ্ত অক্সিজেনের ব্যবস্থা থাকে সেই বিষয়েও রাজ্য সরকারকে পদক্ষেপ নেওয়ার আর্জি জানানো হয়েছিল। সেই মামলাযর প্রেক্ষিতে হাইকোর্ট জানিয়েছে, এই ব্যাপারে কেন্দ্র কোনও গাইডলাইন সোমবারের মধ্যে দিচ্ছে কি না সেটা দেখেই নির্দেশ দেওয়া হবে।

 

বন্ধ করুন