বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > Subodh Adhikari: চিটফান্ড মামলায় TMC MLA-কে সাক্ষী হিসেবে ৩ ঘণ্টার বেশি জিজ্ঞাসাবাদ নয়: HC
বিধায়ক সুবোধ অধিকারী।

Subodh Adhikari: চিটফান্ড মামলায় TMC MLA-কে সাক্ষী হিসেবে ৩ ঘণ্টার বেশি জিজ্ঞাসাবাদ নয়: HC

  • অতীতে অনেক ক্ষেত্রে দেখা গিয়েছে সাক্ষী হিসেবে ডেকে পাঠানোর পরেও সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিকে ঘণ্টার পর ঘণ্টা জিজ্ঞাসবাদ করে গিয়েছে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা। সুবোধের আইনজীবীর বক্তব্য, এর আগে সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়, মদন মিত্রদের ক্ষেত্রে দেখা গিয়েছে তাদের সাক্ষী হিসেবে ডেকে পাঠানো হয়েছিল।

বেআইনিন অর্থলগ্নী সংস্থার মামলায় কিছুটা স্বস্তি পেলেন বীজপুরের তৃণমূল বিধায়ক সুবোধ অধিকারী। তাকে জিজ্ঞাসাবাদে জন্য ডেকে পাঠিয়েছে সিবিআই। তবে তিন ঘণ্টার বেশি তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করতে পারবে না সিবিআই। কলকাতা হাইকোর্ট জানিয়ে দিয়েছে, সাক্ষী হিসেবে তাকে ৩ ঘণ্টার বেশি জিজ্ঞাসাবাদ করা যাবে না। শুধু তাই নয়, জিজ্ঞাসাবাদের ৭২ ঘণ্টা আগে তাকে নোটিশ পাঠিয়ে জানাতে হবে নির্দেশ দিয়েছে হাইকোর্ট।

অতীতে অনেক ক্ষেত্রে দেখা গিয়েছে সাক্ষী হিসেবে ডেকে পাঠানোর পরেও সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিকে ঘণ্টার পর ঘণ্টা জিজ্ঞাসবাদ করে গিয়েছে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা। সুবোধের আইনজীবীর বক্তব্য, এর আগে সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়, মদন মিত্রদের ক্ষেত্রে দেখা গিয়েছে তাদের সাক্ষী হিসেবে ডেকে পাঠানো হয়েছিল। অথচ দিনভর জিজ্ঞাসাবাদ করার পর শেষে তাদের গ্রেফতার করা হয়েছিল। তাই সাক্ষী হিসেবে যাতে নির্দিষ্ট সময় ধরে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয় তার জন্য আদালতের কাছে আবেদন জানান বিধায়কের আইনজীবী।

আজ বিচারপতি আইপি মুখোপাধ্যায় এবং বিচারপতি বিশ্বরূপ চৌধুরী ডিভিশন বেঞ্চ জিজ্ঞাসাবাদের ক্ষেত্রে সময় বেঁধে দেওয়ার পাশাপাশি ২৮ সেপ্টেম্বরের মধ্যে সিবিআইয়ের হাতে সমস্ত নথি জমা দেওয়ার জন্য সুবোধকে নির্দেশ দিয়েছে। আদালত স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছে, এই সময়ের মধ্যে তাকে গ্রেফতার করা যাবে না অভিযুক্ত হিসেবে তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করতে চাইলে ১০ দিন আগে তাকে নোটিস দিতে হবে বলে সিবিআইকে নির্দেশ দিয়েছে হাইকোর্ট।

উল্লেখ্য, গত সপ্তাহে সুবোধ অধিকারীকে তলব করেছিল সিবিআই। তবে তিনি সিবিআইয়ের কাছে হাজিরার জন্য ১৫ দিনের সময় চান। তার বক্তব্য ছিল, সানমার্গ চিটফান্ড মামলায় তার কাছে যে তথ্য জানতে চাওয়া হয়েছে এত কম সময়ের মধ্যে তা সংগ্রহ করা সম্ভব নয়। হালিশহর পুরসভার চেয়ারম্যান রাজু সাহানি গ্রেফতার হওয়ার পরে সুবোধের একাধিক ফ্ল্যাটে এবং বাড়িতে তল্লাশি চালায় সিবিআই। সিবিআই সূত্রে জানা গিয়েছে, ওই বাড়িতে তল্লাশি চালিয়ে একাধিক গুরুত্বপূর্ণ নথি পেয়েছেন তদন্তকারীরা। সেই কারণে সুবোধকে জিজ্ঞাসাবাদের প্রয়োজন রয়েছে।

বন্ধ করুন