বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > Calcutta High Court: ৩৯২৯ শূন্যপদে ২০১৪ টেট উত্তীর্ণদেরই নিয়োগের নির্দেশ হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চের

Calcutta High Court: ৩৯২৯ শূন্যপদে ২০১৪ টেট উত্তীর্ণদেরই নিয়োগের নির্দেশ হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চের

নিয়োগ নিয়ে জটিলতার অভিযোগ তুল হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চের দ্বারস্থ হয় প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদ। (HT_PRINT)

২০১৪-র টেটের ভিত্তিতে প্রাথমিকে ২০১৬ এবং ২০২০ সালে নিয়োগ হয়। এর ২০২০ সালে নিয়োগের পর যে পদ পড়েছিল এক মামলার প্রেক্ষিতে তা পূরণের নির্দেশ দিয়েছিলেন বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়।

 একক বেঞ্চের রায়কে বহাল রেখে ৩৯২৯ বকেয়া শূন্যপদে ২০১৪ সালের টেট উত্তীর্ণদের চাকরি দিতে পর্ষদকে নির্দেশ দিল কলকাতা হাইকোর্ট। বিচারপতি সূব্রত তালুকদার ও বিচারপতি সুপ্রতিম ভট্টাচার্যের ডিভিশন বেঞ্চ এই নির্দেশ দিয়ে বলে, আসন্ন নিয়োগ বিজ্ঞপ্তির মধ্যে যে পদ রাখা হয়েছে তা বরাদ্দ রাখতে হবে টেট উত্তীর্ণ চাকরি প্রার্থীদের জন্য।

পর্ষদের আসন্ন নিয়োগ বিজ্ঞপ্তির মধ্যে ৩৯২৯ পদকে ধরা হয়েছে, এই পদে শুধু ২০১৪ সালে টেট উত্তীর্ণরাই সুযোগ পাবেন। এর আগে বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়ের একক বেঞ্চ ২৫২জনকে সরাসরি নিয়োগের নির্দেশ দিয়েছিল। তা খারিজ করে ডিভিশন বেঞ্চ নির্দেশ দিয়েছে যোগ্যতার ভিত্তিতে নিয়োগ করতে হবে।

২০১৪-র টেটের ভিত্তিতে প্রাথমিকে ২০১৬ এবং ২০২০ সালে নিয়োগ হয়। ২০২০ সালে নিয়োগের পর যে পদ পড়েছিল এক মামলার প্রেক্ষিতে তা পূরণের নির্দেশ দিয়েছিলেন বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়। এই সালে ১৬,৫০০ পদে নিয়োগের কথা জানায় পর্ষদ। কিন্তু পরে অভিযোগ ওঠে সব পদে নিয়োগ সম্পন্ন হয়নি। জানা যায় ১২হাজার পদে নিয়োগ হয়েছিল সেই সময়। বাকি ৩৯২৯ পদে নিয়োগ হয়নি।

বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায় নির্দেশ দেন ওই পদে ২০১৪-র টেট উত্তীর্ণদেরই নিয়োগ করতে হবে। পরে আদালতে এক মামলার প্রেক্ষিতে ২০১৪-র প্রশ্ন ভুলের দরুণ যাঁরা উত্তীর্ণ হতে পারেননি তাঁদেরও নিয়োগ করতে নির্দেশ তিনি। বিষয়টি নিয়ে জটিলতার প্রেক্ষিতে হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চের দ্বারস্থ হয় প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদ। বিচারপতি গঙ্গোপাধ্য়ায়ের রায়কে বহাল রেখেই  সেই বকেয়া ৩৯২৯ শূন্যপদে ২০১৪ সালের টেট উত্তীর্ণদের নিয়োগের নির্দেশ দিল ডিভিশন বেঞ্চ।

বন্ধ করুন