বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > আমফান ত্রাণ দুর্নীতির তদন্ত করবে ক্যাগ, রাজ্যকে সহযোগিতা করার নির্দেশ আদালতের
আমফানের ভয়াবহতা, পাশে কলকাতা হাইকোর্ট। ছবি সৌজন্য : পিটিআই
আমফানের ভয়াবহতা, পাশে কলকাতা হাইকোর্ট। ছবি সৌজন্য : পিটিআই

আমফান ত্রাণ দুর্নীতির তদন্ত করবে ক্যাগ, রাজ্যকে সহযোগিতা করার নির্দেশ আদালতের

  • জুনের শেষদিকে হাইকোর্টে জনস্বার্থ মামলা দায়ের করে দক্ষিণ ২৪ পরগনার কৃষক সংগঠন। অভিযোগে জানানো হয়, ক্ষতিপূরণের ২০ হাজার টাকা বিলির ক্ষেত্রে স্বজনপোষণ করেছে রাজ্য সরকার তথা রাজ্যের শাসকদল তৃণমূল।

রাজ্যে আমফান ক্ষতিপূরণের বণ্টন হওয়া অর্থের অডিট করবে ক্যাগ (‌CAG)‌। বুধবার আমফান মামলার শুনানিতে এ কথা পরিষ্কার জানাল প্রধান বিচারপতি টিবিএন রাধাকৃষ্ণন ও বিচারপতি অরিজিৎ বন্দ্যোপাধ্যায়ের ডিভিশন বেঞ্চ। একইসঙ্গে এই তদন্তে কম্পট্রলার অ্যান্ড অডিটর জেনারেলকে (‌ক্যাগ)‌ সাহায্য করতে হবে রাজ্য সরকারকে। স্বাভাবিকভাবেই এই নির্দেশে মুখ পুড়ল রাজ্য সরকারের। কারণ ক্যাগকে দিয়ে তদন্তের রায় পুনর্বিবেচনার আর্জি জানিয়েছিল রাজ্য। তা এদিন তা খারিজ করা হল।

২০২০–র মে মাসে পশ্চিমবঙ্গকে প্রায় তছনছ করে দিয়েছিল ঘূর্ণিঝড় আমফান। ক্ষতিগ্রস্তদের পাশে দাঁড়াতে আর্থিক সহায়তার পাশাপাশি ত্রাণও দেয় সরকার। কিন্তু সেই ক্ষতিপূরণের অর্থ, এমনকী ত্রিপল বিলি নিয়ে একাধিক দুর্নীতির অভিযোগ ওঠে। জুনের শেষদিকে হাইকোর্টে জনস্বার্থ মামলা দায়ের করে দক্ষিণ ২৪ পরগনার কৃষক সংগঠন। অভিযোগে জানানো হয়, ক্ষতিপূরণের ২০ হাজার টাকা বিলির ক্ষেত্রে স্বজনপোষণ করেছে রাজ্য সরকার তথা রাজ্যের শাসকদল তৃণমূল।

একইসঙ্গে অভিযোগে জানানো হয়, বেশিরভাগ মানুষ যাঁরা প্রকৃত অর্থে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছিলেন তাঁদের কাছে সরকারের কোনও সাহায্য গিয়ে পৌঁছয়নি। আমফান মামলার প্রথম শুনানি হয় গত ১ ডিসেম্বর। ক্যাগকে তদন্তের ভার দেয় হাইকোর্ট। আপত্তি জানিয়ে পুনর্বিবেচনার আর্জি জানায় রাজ্য। একইসঙ্গে রাজ্যের তরফে জানানো হয়, রাজ্যের ১৬টি জেলায় যে অর্থ বণ্টন হয়েছে তাতে সম্পূর্ণ স্বচ্ছতা বজায় রাখা হয়েছে। সরাসরি ক্ষতিগ্রস্তদের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে টাকা দেওয়া হয়েছে। যদিও শেষপর্যন্ত এই দুর্নীতির অভিযোগের তদন্তে ক্যাগের ওপরই ভরসা রাখল কলকাতা হাইকোর্ট।

বন্ধ করুন