বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > রাজ্যে কত লাল ও নীলবাতি গাড়ি রয়েছে? ভুয়ো টিকা মামলায় রাজ্যকে প্রশ্ন আদালতের
গ্রেফতার দেবাঞ্জন দেবের ভুয়ো কার্ড ও নীল বাতি লাগানো গাড়ি (নিজস্ব চিত্র)
গ্রেফতার দেবাঞ্জন দেবের ভুয়ো কার্ড ও নীল বাতি লাগানো গাড়ি (নিজস্ব চিত্র)

রাজ্যে কত লাল ও নীলবাতি গাড়ি রয়েছে? ভুয়ো টিকা মামলায় রাজ্যকে প্রশ্ন আদালতের

  • আদালতের প্রশ্ন, ‘পুরসভার জয়েন্ট কমিশনার বলে দাবি করে এতদিন ঘুরে বেড়াল দেবাঞ্জন, পুরসভার কারও নজরে পড়ল না? জয়েন্ট কমিশনার পরিচয় দিয়ে বিখ্যাত লোকেদের সঙ্গে ছবি তুলল তাও সবার চোখ এড়িয়ে গেল?’

ভুয়ো ভ্যাকসিনকাণ্ডে সিবিআই তদন্তের দাবিতে দায়ের মামলায় রাজ্যে লাল ও নীলবাতি লাগানো গাড়ি নিয়ে আদালতের প্রশ্নের মুখে রাজ্য সরকার। রাজ্যে কত লাল ও নীলবাতি লাগানো গাড়ি চলছে তা জানতে চাইল কলকাতা হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতির ডিভিশন বেঞ্চ।

এদিনের শুনানিতে ভারপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতি রাজেশ বিন্দোল ও বিচারপতি অভিজিৎ বন্দ্যোপাধ্যায়ের ডিভিশন বেঞ্চ প্রশ্ন করে, ‘রাজ্যে যথেচ্ছ লাল ও নীলবাতি ব্যবহার হচ্ছে। তা কি প্রশাসনের চোখে পড়েনি? কী করে একজন আইএএস অফিসার নীলবাতি ব্যবহার করেন? রাজ্যে এরকম কত নীলবাতি লাগানো গাড়ি রয়েছে? কালো কাচে ঘেরা গাড়িই বা কত রয়েছে?’

আদালতের প্রশ্ন, ‘পুরসভার জয়েন্ট কমিশনার বলে দাবি করে এতদিন ঘুরে বেড়াল দেবাঞ্জন, পুরসভার কারও নজরে পড়ল না? জয়েন্ট কমিশনার পরিচয় দিয়ে বিখ্যাত লোকেদের সঙ্গে ছবি তুলল তাও সবার চোখ এড়িয়ে গেল?’

জবাবে সরকারি আইনজীবী বলেন, ‘দেবাঞ্জন একজন প্রতারক। সে নানা অছিলায় বিখ্যাত মানুষদের সঙ্গে ছবি তুলেছে। তার পর সেই ছবি দেখিয়ে প্রতারণা করেছে।’

এদিনের শুনানিতে মামলায় সিবিআইকে পক্ষ করার নির্দেশ দেয় আদালত। আগামী সোমবার মামলার পরবর্তী শুনানিতে আদালতে সিবিআইয়ের আইনজীবীকে হাজিরার নির্দেশ দেন বিচারপতিরা।

 

বন্ধ করুন