বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > Calcutta University: নজিরবিহীন! রাজভবনে আটকে ফাইল, শুক্রবার উপাচার্যহীন কাটাল কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়

Calcutta University: নজিরবিহীন! রাজভবনে আটকে ফাইল, শুক্রবার উপাচার্যহীন কাটাল কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়

কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়।

রাজ্যপাল লা গণেশনের সময় অস্থায়ী উপাচার্য নিয়োগ করা হয়। সেই সময় নির্দেশিকায় বলা হয়েছিল, তিন মাসের মধ্যে সার্চ কমিটি গঠন করে নতুন উপচার্য নিয়োগ করতে হবে কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ে। কিন্তু তিন মাস কেটে গেলেও এখনও স্থায়ী উপচার্য নিয়োগ করা যায়নি।

বিশ্ববিদ্যালয়ের অস্থায়ী উপাচার্যের মেয়াদ শেষ হয়েছে। নতুন উপাচার্য নিয়োগের নির্দেশিকা এখনও পৌছয়নি ফলে শুক্রবার নজিরবিহীন ভাবে দিনভর কাজ চলল উপাচার্য ছাড়া। সাম্প্রতিক সময়ে কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ে এমন ঘটনা দেখা যায়নি বলে জানিয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের অনেকে।

উচ্চশিক্ষা দফতর সূত্রের খবর, শুক্রবার রাত পর্যন্ত উপাচার্য নিয়ে কোনও চিঠি এসে পৌঁছয়নি। শনি, রবি ও সোমবার বিশ্ববিদ্যালয়ে ছুটি রয়েছে। মঙ্গলবার বিশ্ববিদ্যালয় ফের খুলবে। উচ্চশিক্ষা দফতর আশা করছে ওই সময়ের মধ্যে রাজভবন থেকে নির্দেশিকা এসে পৌঁছবে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের অস্থায়ী উপচার্য হিসাবে দায়িত্বে ছিলেন আশিসকুমার চট্টোপাধ্যায়। নতুন উপাচার্য না আসা পর্যন্ত তাঁরই মেয়াদ বাড়ানোর জন্য রাজ ভবনে ফাইল পাঠানো হয়েছে। কিন্তু তাতে এখনও অনুমোদন দেয়নি রাজভবন। ফলে আশিস চট্টোপাধ্যায়ের মেয়াদ শেষ হয়ে যাওয়ার পর শুক্রবার উপচার্যহীন কাটল কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের।

প্রসঙ্গত, রাজ্যপাল লা গণেশনের সময় অস্থায়ী উপাচার্য নিয়োগ করা হয়। সেই সময় নির্দেশিকায় বলা হয়েছিল, তিন মাসের মধ্যে সার্চ কমিটি গঠন করে নতুন উপচার্য নিয়োগ করতে হবে কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ে। কিন্তু তিন মাস কেটে গেলেও এখনও স্থায়ী উপচার্য নিয়োগ করা যায়নি। ফলে উচ্চশিক্ষা দফতরের পক্ষ থেকে আশিস চট্টোপাধ্যায়কে আপাতত অস্থায়ী উপাচার্য হিসাবে কাজ চালানোর অনুমোদন দিতে রাজভবনের অনুমতি চাওয়া হয়। কিন্তু এখনও সেই অনুমোদন মেলেনি।

তবে বিশ্ববিদ্যালয়ের একাংশ মনে করছেন, মঙ্গলবার পরও যদি কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় উপাচার্যহীন থাকে তবে কাজকর্ম পরিচলানার ক্ষেত্রে সমস্যা তৈরি হতে পারে। শুধু কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় নয় রাজ্যের একাধিক বিশ্ববিদ্যালয় উপাচার্যহীন অবস্থায় চলছে। বিষয়টি নিয়ে দ্রুত সমাধান চান রাজ্যপালও। কিছু দিন আগে রাজ্যের বিশ্ববিদ্যালয়গুলির উপচার্যের সঙ্গে কথা বলেন রাজভবনে। যে সব বিশ্ববিদ্যালয়ে এখনও উপাচার্য নেই সেই সব বিশ্ববিদ্যালয়ে যাতে দ্রুত উপাচার্য নিয়োগ করা যায় তার জন্য উদ্যোগী রাজ্যপালও। তাই উচ্চশিক্ষা দফতর মনে করছে খুব দ্রুত এই সমস্যার সমাধান হয়ে যাবে।

এই খবরটি আপনি পড়তে পারেন HT App থেকেও। এবার HT App বাংলায়। HT App ডাউনলোড করার লিঙ্ক https://htipad.onelink.me/277p/p7me4aup

বন্ধ করুন