বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > দমদম বিমানবন্দরে উদ্ধার হল ৪,২৫০ কোটি টাকা দামের তেজষ্ক্রিয় ধাতুর আকরিক
বিমানবন্দরে উদ্ধার হওয়া প্রস্তরখণ্ড।
বিমানবন্দরে উদ্ধার হওয়া প্রস্তরখণ্ড।

দমদম বিমানবন্দরে উদ্ধার হল ৪,২৫০ কোটি টাকা দামের তেজষ্ক্রিয় ধাতুর আকরিক

  • পাথরগুলি উদ্ধার করে বিধাননগরের ভাবা পরমাণু গবেষণা কেন্দ্রে পাঠানো হয়েছে। সঙ্গে গ্রেফতার করা হয়েছে ব্যাগের মালিক সাইলান কর্মকার ও তাঁর সঙ্গী অসিত কর্মকারকে।

দমদম বিমানবন্দর থেকে উদ্ধার হল ৪,২৫০ কোটি টাকার তেজষ্ক্রিয় ধাতুর আকর। প্রাথমিক তদন্তে গোয়েন্দাদের অনুমান ছাইরঙা পাথরগুলি তেজষ্ক্রিয় ধাতু ক্যালিফোর্নিয়ামের আকরিক। ঘটনায় ২ ব্যক্তিকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। ধৃতরা হুগলির বাসিন্দা।

বুধবার সন্ধ্যায় ব্যাগ পরীক্ষার সময় একটি ব্যাগ থেকে ছাই রঙের চারটি পাথর উদ্ধার করেন বিমানবন্দরের নিরাপত্তারক্ষীরা। অন্ধকারেও আলো বিচ্ছুরণ করছিল পাথরগুলি। যাতে সন্দেহ জাগে আধিকারিকদের মনে। পরে জানা যায় সেগুলি তেজষ্ক্রিয় ধাতু ক্যালিফোর্নিয়ামের আকরিক। যার এক গ্রামের দাম ১৭ কোটি টাকা। চারটি পাথকের মোট ওজন ২৫০ গ্রামের কাছাকাছি। যার দাম প্রায় ৪,২৫০ কোটি বলে অনুমান গোয়েন্দাদের।

পাথরগুলি উদ্ধার করে বিধাননগরের ভাবা পরমাণু গবেষণা কেন্দ্রে পাঠানো হয়েছে। সঙ্গে গ্রেফতার করা হয়েছে ব্যাগের মালিক সাইলান কর্মকার ও তাঁর সঙ্গী অসিত কর্মকারকে। সাইলান হুগলির সিঙুর ও অসিত পোলবার বাসিন্দা।

গবেষণা চিকিৎসার নানা কাজে ব্যবহার করা হয় ক্যালিফোর্নিয়ামকে। যুবকরা এই ধাতুর আকর কোথা থেকে পেলেন। আর তা তাঁরা কোথায় নিয়ে যাচ্ছিলেন তা জানতে তদন্ত চলছে। বিমানবন্দরে দামি ধাতু ধরা পড়ার ঘটনা প্রথম নয়। তবে এক সঙ্গে হাজার হাজার কোটির আকরিক শেষ কবে ধরা পড়েছিল মনে করতে পারছেন না তদন্তকারীরাও।

 

বন্ধ করুন