বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > কোনও চিকিৎসক নেই কেন? গঙ্গাসাগর মেলা নিয়ে গঠিত কমিটির সদস্য বদলের দাবিতে মামলা
গঙ্গাসাগর মেলা নিয়ে গঠিত কমিটির সদস্য বদলের দাবিতে মামলা (প্রতীকী ছবি, সৌজন্যে পিটিআই) (PTI)

কোনও চিকিৎসক নেই কেন? গঙ্গাসাগর মেলা নিয়ে গঠিত কমিটির সদস্য বদলের দাবিতে মামলা

  • হাই কোর্টের নির্দেশে গঠিত কমিটিতে আছেন রাজ্যের মুখ্যসচিব হরেকৃষ্ণ দ্বিবেদী, বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী এবং রাজ্য মানবাধিকার কমিশনার।

করোনা আবহে গঙ্গাসাগর মেলার উপর আপত্তি জানিয়ে জনস্বার্থ মামলা করা হয়েছিল কলকাতা হাই কোর্টে। সেই মামলার প্রেক্ষিতে সর্তসাপেক্ষে গঙ্গাসাগর মামলার অনুমতি দিয়েছিল উচ্চ আদালত। তবে পরিস্থিতি পর্যালোচনার জন্য গঠিত হয়েছিল একটি কমিটি। সেই কমিটিতে আছেন রাজ্যের মুখ্যসচিব হরেকৃষ্ণ দ্বিবেদী, বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী এবং রাজ্য মানবাধিকার কমিশনার। তবে জনস্বাস্থ্য সংক্রান্ত একটি বিষয় নিয়ে গঠিত কমিটিতে কেন কোনও চিকিত্সক নেই? এই প্রশ্ন করেই এবার মামলা দায়ের করা হল আদালতে। মেলার জন্য গঠিত কমিটি পুনর্গঠন করার আবেদন জানিয়ে মামলা করেছে রাজ্য সরকার। পাশাপাশি আরও চারজন একই প্রশ্ন তুলে মামলা করেছেন হাই কোর্টে।

শুধুমাত্র স্বাস্থ্য পরিষেবার সঙ্গে যুক্ত বিশেষজ্ঞদের নিয়ে কমিটি গঠনের আর্জি জানিয়েছেন মামলাকারীরা। এদিকে মামলাকারীদের আরও বক্তব্য, হাই কোর্টের গঠিত কমিটিতে রাজ্য মানবাধিকার কমিশনের চেয়ারপার্সনের উল্লেখ থাকলেও বর্তমানে রাজ্যে এই পদে কেউই নেই। পাশাপাশি তাঁদের প্রশ্ন, শুভেন্দু অধিকারীর মতো রাদনীতিবিদের নাম কেন এই কমিটিতে রয়েছে? প্রধান বিচারপতি প্রকাশ শ্রীবাস্তবের ডিভিশন বেঞ্চ মামলা দায়ের করার অনুমতি দিয়েছেন।

উল্লেখ্য, করোনার জেরে চলতি বছরের গঙ্গাসাগর মেলা বন্ধ রাখার দাবি জানিয়ে কলকাতা হাই কোর্টে মামলা করেছিলেন অভিনন্দন মণ্ডল নামে একজন চিকিৎসক। সেই মামলার নির্দেশে প্রধান বিচারপতি শর্ত সাপেক্ষে গঙ্গাসাগর মেলা করার অনুমতি দিয়েছিলেন। শর্তে বলা হয়েছিল, রাজ্য সরকার তিন সদস্যের একটি কমিটি তৈরি করবে। সেই কমিটি পরিস্থিতি বুঝে মেলা চালিয়ে যাওয়া বা বন্ধের সিদ্ধান্ত নিতে পারে।

বন্ধ করুন