বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > ২১ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত CBI হেফাজত পার্থ-কল্যাণময়ের, মূল চক্রী প্রাক্তন মন্ত্রী?
পার্থ চট্টোপাধ্যায়। ফাইল ছবি (HT_PRINT)

২১ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত CBI হেফাজত পার্থ-কল্যাণময়ের, মূল চক্রী প্রাক্তন মন্ত্রী?

  • পার্থ চট্টোপাধ্যায় ও কল্যাণময় গঙ্গোপাধ্যায় উভয়েরই সিবিআই হেফাজতের নির্দেশ দিল আদালত। এবার কি দুজনকে মুখোমুখি বসিয়ে জেরা করবে সিবিআই?

২১ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত প্রাক্তন মন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়কে সিবিআই হেফাজতের নির্দেশ দিলেন বিশেষ সিবিআই আদালতের বিচারক। ইডির পরে এবার সিবিআই হেফাজত। এর সঙ্গেই ২১ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত মধ্যশিক্ষা পর্ষদের প্রাক্তন সভাপতি কল্য়াণময় গঙ্গোপাধ্যায়কেও সিবিআই হেফাজতের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। 

এদিন আদালত থেকে বেরিয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে সিবিআইয়ের আইনজীবী জানিয়েছেন, আরও তদন্তের জন্য কাস্টডিতে নিয়ে জেরা করা প্রয়োজন। এটি একটি বড় চক্রান্ত। তিনি বলেন, huge conspiracy। এদিন আদালতেও একথা জানিয়েছেন সিবিআইয়ের আইনজীবী। দুই অভিযুক্তকেই ২১শে সেপ্টেম্বর, বুধবার পর্যন্ত সিবিআই হেফাজতের নির্দেশ দিয়েছে আদালত। জানিয়েছেন সিবিআইয়ের আইনজীবী।

তাদের দুজনকেই নিজাম প্যালেসে নিয়ে যাওয়ার তোড়জোড় শুরু হয়েছে। এদিকে দীর্ঘদিন বাদে কল্যাণময় গঙ্গোপাধ্যায়ের সঙ্গে দেখা হয় প্রাক্তন মন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের। আর সেটাও একেবারে আদালতের এজলাসে। সেখানে নীচু হয়ে দুজনকে কথা বলতে দেখা যায়।

বে সূত্রের খবর, এবার জেরা করে উভয়ের বয়ান মিলিয়ে দেখতে পারে সিবিআই। কল্যাণ ও পার্থকে মুখোমুখি বসিয়েও জেরা করা হতে পারে। সেক্ষেত্রে উভয়ে কথাটা মুখ খোলেন, নতুন কী সূত্র পাওয়া যায় সেটাই এখন দেখার।  

এদিকে সিবিআইদের তরফে দাবি করা হচ্ছে এই কেলেঙ্কারির মূল চক্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়। তবে যাবতীয় দায় ঝেড়ে ফেলার জন্য় এদিন মরিয়া চেষ্টা চালান প্রাক্তন মন্ত্রী। তাঁর কথায় এসএসসি আলাদা সংস্থা। তিনি মন্ত্রী থাকলেও এসএসসির কোনও কাজে তাঁর নিয়ন্ত্রণ ছিল না। পাশাপাশি তিনি যে যথেষ্ট অসুস্থ সেকথাও বার বার বলার চেষ্টা করেন তিনি। কিন্তু এদিনও জামিন মেলেনি প্রাক্তন মন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের।

 

বন্ধ করুন