বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > মণীশ খুনে বিহার থেকে খালি হাতে ফিরছে CID, ওদিকে তদন্তের অগ্রগতি জানতে চাইল আদালত
নিহত বিজেপি নেতা মণীশ শুক্ল। ডান দিকে
নিহত বিজেপি নেতা মণীশ শুক্ল। ডান দিকে

মণীশ খুনে বিহার থেকে খালি হাতে ফিরছে CID, ওদিকে তদন্তের অগ্রগতি জানতে চাইল আদালত

  • বিহার পুলিশের তরফে স্পষ্ট জানানো হয়েছে সেরাজ্যে বিধানসভা নির্বাচনের মুখে কোনও ভাবেই ছাড়া যাবে না সুবোধকে।

টিটাগড়ে বিজেপি নেতা মণীশ শুক্ল খুনে চাপে পড়ে গেল CID. বিহারে গিয়েও জেরা করা হল না এই ঘটনায় মূল ষড়যন্ত্রকারী সুবোধ সিংকে। পটনা জেলে বন্দি সুবোধের সঙ্গে দেখা করতে পারলেন CID-র গোয়েন্দারা। ফলে খালি হাতেই ফিরতে হয়েছে তাঁদের। ওদিকে মঙ্গলবারই প্রিয়াঙ্কা টিব্রেওয়ালের করা মামলায় CID-র কাছে মণীশ শুক্ল হত্যা তদন্তের অগ্রগতি জানতে চায় কলকাতা হাইকোর্ট। আগামী শুক্রবারের মধ্যে তা জমা দিতে হবে আদালতে।

মণীশ শুক্ল খুনের তদন্তে সুবোধ যাদব নামে এক দুষ্কৃতীকে জেরা করে সুবোধ সিং নামে এক দুষ্কৃতীর খোঁজ পান সিআইডির গোয়েন্দারা। গোয়েন্দাদের দাবি, পটনা জেলে বসেই মণীশকে খুনের ব্লু প্রিন্ট তৈরি করেছিল সে। এর পর তাকে জেরা করতে বিহার রওনা হয় পশ্চিমবঙ্গ CID-র একটি দল। 

সেখানে জেলবন্দি সুবোধকে জেরা করতে চেয়ে বিহার পুলিশের কাছে আবেদন জানায় তারা। সুবোধ সিংকে ট্রানজিট রিমান্ডে পশ্চিমবঙ্গে নিয়ে আসার অনুমতিও চাওয়া হয়। কিন্তু বিহার পুলিশের তরফে স্পষ্ট জানানো হয়েছে সেরাজ্যে বিধানসভা নির্বাচনের মুখে কোনও ভাবেই ছাড়া যাবে না সুবোধকে। এই ঘটনায় এখনো পর্যন্ত ৪ জনকে গ্রেফতার করলেও শ্যুটারদের কাউকেই গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ।

মঙ্গলবার CID-র কাছে মণীশ শুক্ল খুনের তদন্তের অগ্রগতি জানতে চাইল কলকাতা হাইকোর্ট। হাইকোর্টে বিচারপতি সঞ্জীব বন্দ্যোপাধ্যায়ের ডিভিশন বেঞ্চ তদন্তের অগ্রগতির বিস্তারিত তলব করেছে। আগামী শুক্রবার মামলার শুনানির আগে জমা দিতে হবে এই রিপোর্ট। 

গত ৪ অক্টোবর টিটাগড় থানার কাছে খুন হন বিজেপি নেতা মণীশ শুক্ল। এর পর CBI তদন্তের দাবিতে সরব হয় বিজেপি। স্থানীয় বিজেপি সাংসদ অর্জুন সিংয়ের দাবি, মণীশ খুনে তাঁকে ফাঁসানোর চেষ্টা করছে তৃণমূল ও CID. বিজেপির দাবি, পুলিশ ও তৃণমূল মিলে খুন করেছে মণীশ শুক্লকে। 

 

বন্ধ করুন