বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > Primary Teacher: ‘সিটি অফ জয়’ বিক্ষোভের শহরে পরিণত হতে পারে না:‌ আদালত
কলকাতা হাইকোর্ট (ফাইল ছবি, সৌজন্য পিটিআই)

Primary Teacher: ‘সিটি অফ জয়’ বিক্ষোভের শহরে পরিণত হতে পারে না:‌ আদালত

  • এর আগে এসএসসিতে নিয়োগ দুর্নীতির বিরুদ্ধে দীর্ঘদিন ধরে অবস্থান বিক্ষোভে বসে চাকরিপ্রার্থীরা। এসএসসির বিরুদ্ধে নিয়োগ দুর্নীতির প্রতিবাদ শেষ পর্যন্ত আদালত পর্যন্ত গড়ায়। পাঁচটি মামলা দায়ের করা হয়।

শহর কলকাতা একটা সময়ে সিটি অফ জয় হিসাবেই পরিচিত ছিল। কিন্তু এখন শহরের বিভিন্ন প্রান্তে বিক্ষোভ প্রদর্শনের পালা চলছেই। কখনও মেয়ো রোডে গান্ধী মূর্তির পাদদেশে, আবার কখনও স্কুল সার্ভিস কমিশনের অফিসের সামনে। এবার উচ্চ প্রাথমিকে নিয়োগ দুর্নীতির বিরুদ্ধে অবস্থান বিক্ষোভে বসার অনুমতি দিল হাইকোর্ট।

সম্প্রতি পুলিশের অনুমতি না পেয়ে হাইকোর্টের দ্বারস্থ হয়েছিলেন চাকরিপ্রার্থীরা। বিচারপতি শম্পা সরকারের এজলাসে এই মামলার শুনানি ছিল। বুধবার চাকরিপ্রার্থীদের আবেদন মঞ্জুর করেছে আদালত। আদালতের তরফে জানানো হয়েছে, মাতঙ্গিনী হাজরার মূর্তির পাদদেশ অবস্থান বিক্ষোভে বসতে পারবেন চাকরিপ্রার্থীরা। তবে বিচারপতি এদিন স্পষ্ট জানিয়ে দেন, যেখানে সেখানে বিক্ষোভ দেখানো যাবে না। কিছুটা ভর্ৎসনার সুরেই বিচারপতি এদিন জানান, আনন্দেন শহর কলকাতা কখনওই বিক্ষোভের শহরে পরিণত হতে পারে না। নির্দিষ্ট স্থানেই অবস্থান বিক্ষোভ হবে। শান্তিপূর্ণভাবেই বিক্ষোভ দেখাতে হবে।

এর আগে এসএসসিতে নিয়োগ দুর্নীতির বিরুদ্ধে দীর্ঘদিন ধরে অবস্থান বিক্ষোভে বসে চাকরিপ্রার্থীরা। এসএসসির বিরুদ্ধে নিয়োগ দুর্নীতির প্রতিবাদ শেষ পর্যন্ত আদালত পর্যন্ত গড়ায়। পাঁচটি মামলা দায়ের করা হয়। আদালত ওই সব মামলার প্রেক্ষিতে সিবিআই তদন্তের নির্দেশ দেয়। শুধু নবম–দশম, একাদশ–দ্বাদশেই নয়, প্রাথমিকেও দুর্নীতির অভিযোগ উঠছে। এরই মাঝে ষষ্ঠ শ্রেণি থেকে অষ্টম শ্রেণির মধ্যেও শিক্ষক নিয়োগ দুর্নীতির অভিযোগ উঠেছে। মোট ১১২ জন চাকরিপ্রার্থী আবেদন জানিয়েছিলেন।

বন্ধ করুন