বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > ‘‌বিরোধীদের বলব শুভ অহংকার’‌, বিধানসভায় দাঁড়িয়ে বিজেপিকে তুলোধনা মমতার
মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। (ফাইল ছবি, সৌজন্য পিটিআই)
মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। (ফাইল ছবি, সৌজন্য পিটিআই)

‘‌বিরোধীদের বলব শুভ অহংকার’‌, বিধানসভায় দাঁড়িয়ে বিজেপিকে তুলোধনা মমতার

  • আজ নতুন বিধায়করা শপথ নিয়েছেন। উপনির্বাচনে যাঁরা জিতে এসেছেন। সেখানে আজ, সরকারের জনপ্রিয় প্রকল্পগুলি তুলে ধরেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

বিধানসভার মর্যাদা বিরোধীরা দিচ্ছেন না। তাঁরা যা ইচ্ছে তাই করছেন। মঙ্গলবার বিধানসভার অধিবেশন শুরু হতেই বিরোধী দলকে তুলোধনা করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তবে বিরোধী দলের নাম নেননি। শুধু বিষয়টি উত্থাপন করে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘বিরোধীরা বিধানসভাকে বিধানসভা বলে মনেই করেন না। যখন ইচ্ছা হয় আসেন, যখন ইচ্ছা হয় না আসেন না। এতে আমার মর্মবেদনা হয়। তবে খারাপ লাগে না।’

বিধানসভায় দাঁড়িয়েই বিধায়কদের পাঠ দেন তিনি। মুখ্যমন্ত্রী নয়া বিধায়কদের অভিনন্দন জানিয়ে বলেন, ‘‌আপনারা যাঁরা মানুষের ভোটে জিতে এসেছেন, তাঁদের অভিনন্দন জানাই। তবে মানুষের জন্য কাজ করতেই এখানে এসেছেন, সেটা মনে রাখবেন। মানুষের আশীর্বাদ অহংকার করার জায়গা নয়। বিরোধীদের বলব শুভ বিজয়া, শুভ দীপাবলি, শুভ ছট পুজো এবং শুভ অহংকার।’ বিরোধীরা অহংকার করছেন বলে মনে করেন মুখ্যমন্ত্রী। তাই তাঁদের শুভ অহংকার জানিয়েছেন।

আজ নতুন বিধায়করা শপথ নিয়েছেন। উপনির্বাচনে যাঁরা জিতে এসেছেন। সেখানে আজ, সরকারের জনপ্রিয় প্রকল্পগুলি তুলে ধরেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি বলেন, ‘দুয়ারে সরকার প্রকল্প প্রশংসিত হয়েছে। বিশ্বের সেরা প্রকল্প হবে সেটা। তিন কোটি মানুষ এই ক্যাম্পে পৌঁছেছেন। ১৬ নভেম্বর থেকে ফের শুরু হবে দুয়ারে সরকার প্রকল্প। দুয়ারে রেশন প্রকল্পও শুরু হবে। লক্ষ্মীর ভাণ্ডার প্রকল্পে উপকৃত হয়েছেন বহু মহিলা। শীঘ্রই শুরু হবে পাড়ায় পাড়ায় সমাধানের কাজ। স্টুডেন্টস ক্রেডিট কার্ডে কয়েক লক্ষ ছাত্র-ছাত্রী উপকৃত হয়েছে।’

আর আজ বলতে ভোলেননি সুব্রত মুখোপাধ্যায়ের প্রয়াণের কথা। আবেগপ্রবণ হয়ে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘মানুষটা হঠাৎ চলে গেল। পাশে বসেই আড্ডা মারতেন। তাঁর তো কোভিড হয়নি। কিন্তু হঠাৎ হার্ট অ্যাটাকে চলে গেলেন। কিছু ঘটনা মানা যায় না।’ তবে এই প্রথম এভাবে বিরোধীদের তুলোধনা করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

বন্ধ করুন