বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > ‘‌ফ্রিডম মিউজিয়াম তৈরি করছি’‌, আলিপুর সংশোধনাগার নিয়ে পরিকল্পনা মুখ্যমন্ত্রীর
আলিপুর সংশোধনাগার। ছবি সৌজন্য–এএনআই।

‘‌ফ্রিডম মিউজিয়াম তৈরি করছি’‌, আলিপুর সংশোধনাগার নিয়ে পরিকল্পনা মুখ্যমন্ত্রীর

  • এই কাজটি করবেন বাংলার শিল্পীরা বলে পরিকল্পনা করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

আলিপুর কেন্দ্রীয় সংশোধনাগারে এখন সংস্কারের কাজ চলছে। এখানের বন্দিদের বারুইপুরে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। কারণ এখানে ‘ফ্রিডম মিউজিয়াম’ তৈরি করা হচ্ছে। এই কেন্দ্রীয় সংশোধনাগারের দেওয়ালে ফুটে উঠবে স্বাধীনতার আন্দোলনের আলেখ্য। এই কাজটি করবেন বাংলার শিল্পীরা বলে পরিকল্পনা করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

নবান্নে মন্ত্রিসভার বৈঠকের পর পরিকল্পনার কথা জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। কেমন কাজ চলছে সেখানে?‌ তা দেখার জন্য নির্দেশ দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এই কাজ দেখতে যাবেন মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম, ব্রাত্য বসু এবং মুখ্যসচিব এইচ কে দ্বিবেদী, পুলিশ কমিশনার বিনীত গোয়েল। দেশের স্বাধীনতা আন্দোলনে বাংলার ভূমিকা নতুন প্রজন্মের সামনে তুলে ধরতে চান মুখ্যমন্ত্রী।

ঠিক কী বলেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়?‌ মন্ত্রিসভার বৈঠকের পর মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘‌স্বাধীনতার ৭৫ বছর উপলক্ষ্যে নেতাজি, স্বামী বিবেকানন্দ সকলকে সম্মান জানিয়ে অনেক কিছু করা হচ্ছে। তেমনই জেলে একটা ফ্রিডম মিউজিয়াম তৈরি করছি। সেই মিউজিয়ামের কাজ এখন চলছে। কিছুদিনের মধ্যে তা শেষ হয়ে যাবে। তারপর উদ্বোধন করে দিতে পারব। তার আগে মুখ্যসচিবের নেতৃত্বে একটি দল গিয়ে দেখে আসুক যে আর কিছু প্রয়োজন আছে কি না।’‌

কেমন হবে সেই ফ্রিডম মিউজিয়াম?‌ মুখ্যমন্ত্রীর পরিকল্পনা অনুযায়ী, জেলের বাইরের দেওয়াল হেরিটেজ রক্ষা করে রঙ করা হয়েছে। সেখানে স্বাধীনতা আন্দোলনের বিভিন্ন ঘটনা ফুটিয়ে তোলা হবে। এই কাজটি করবেন বাংলার ১০জন শিল্পী। বেশকিছু স্থান সংরক্ষিত করা হবে। তিনি বলেন, ‘‌লোকে এই মিউজিয়ামটা দেখতে যাবে। আমি চাই যাঁরা পেইন্টিং করেন, ফ্রিডম ফাইটের উপরে একদিন তাঁরা পেইন্টিং করবেন। আমি নিজেও থাকব।’‌ এই শিল্পকর্মে যোগেন চৌধুরী, শুভাপ্রসন্নর মতো শিল্পীরা আঁকবেন।

বন্ধ করুন