বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > নবান্ন বলছে ১০টা ট্রেন আসছে, রেল বলছে একটাও ট্রেন চালানোর আবেদন পাইনি
গুজরাতমুখি শ্রমিক স্পেশ্যাল ট্রেনে উঠছেন যাত্রীরা।
গুজরাতমুখি শ্রমিক স্পেশ্যাল ট্রেনে উঠছেন যাত্রীরা।

নবান্ন বলছে ১০টা ট্রেন আসছে, রেল বলছে একটাও ট্রেন চালানোর আবেদন পাইনি

  • কেন্দ্র ও রাজ্যের দু রকম তথ্যে চরম বিভ্রান্তিতে প্রবাসী শ্রমিকরা। কবে কোথা থেকে ট্রেন ছাড়বে তা জানতে উদগ্রীব তাঁরা।

প্রায় ২ সপ্তাহের টানাপোড়েনের পর অবশেষে ভিনরাজ্যের শ্রমিকদের জন্য বিশেষ ট্রেন পশ্চিমবঙ্গে ঢোকার অনুমতি দিল পশ্চিমবঙ্গ সরকার। শনিবার বিকেলে নবান্নে একথা জানিয়েছেন পশ্চিমবঙ্গের স্বরাষ্ট্রসচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়। সঙ্গে তিনি বলেন, ৮টি নয়, ভিনরাজ্য থেকে শ্রমিকদের নিয়ে ফিরছে ১০টি ট্রেন। সঙ্গে আশেপাশের রাজ্যগুলি থেকে ১,০০০ বাসে করে ফিরছেন শ্রমিকরা। যদিও রেলমন্ত্রক বলছে, পশ্চিমবঙ্গের কাছ থেকে শ্রমিক স্পেশ্যাল ট্রেন চালানোর জন্য কোনও আবেদন পায়নি তারা। 

এদিন আলাপনবাবু বলেন, কেরল, তামিলনাড়ু, কর্নাটক, তেলেঙ্গানা, পঞ্জাব থেকে পশ্চিমবঙ্গের শ্রমিকদের ফেরানো হবে। রবিবার একটি ট্রেন তেলেঙ্গানা থেকে মালদা পৌঁছবে। এছাড়া উত্তর প্রদেশ ও উত্তরাখণ্ডের তীর্থস্থানগুলি থেকে তীর্থযাত্রীদের ফেরানো হবে বলে জানিয়েছেন তিনি। সঙ্গে স্বরাষ্ট্রসচিব জানান, প্রায় ২০,০০০ মানুষ গাড়ি ও অন্যান্য পদ্ধতিতে পশ্চিমবঙ্গে ফিরেছেন। 

তবে গোল বেঁধেছে কেন্দ্র ও রাজ্যের ২ রকম দাবি নিয়ে। রাজ্য সরকার ট্রেন ছেড়েছে বলে দাবি করলেও কেন্দ্রের দাবি, ট্রেন চালানোর আবেদনই পায়নি তারা। প্রবাসী শ্রমিকদের ফেরানো হবে বলে শুক্রবার তৃণমূলের তরফে সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রচার চালানো হয়। জানানো হয় শনিবার বেঙ্গালুরু ও হায়দরাবাদ থেকে প্রবাসী শ্রমিকদের নিয়ে ছাড়বে ৪টি ট্রেন। যদিও শনিবার সন্ধ্যা পর্যন্ত কোনও ট্রেন ছাড়েনি বলে টুইটে জানিয়েছেন সিপিএমের রাজ্য সম্পাদক সূর্যকান্ত মিশ্র। 

ওদিকে কেন্দ্র ও রাজ্যের দু রকম তথ্যে চরম বিভ্রান্তিতে প্রবাসী শ্রমিকরা। কবে কোথা থেকে ট্রেন ছাড়বে তা জানতে উদগ্রীব তাঁরা। ধৈর্যের বাঁধ ভাঙছে ভেলোর ও চেন্নাইতে চিকিৎসা করতে যাওয়া রোগী ও তাদের পরিজনদেরও। 

 

বন্ধ করুন