বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > মুখোমুখি লড়াই হতে চলেছে বাম–কংগ্রেসের, তৈরি হচ্ছে তেমনই প্রার্থী তালিকা
কংগ্রেস। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই)
কংগ্রেস। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই)

মুখোমুখি লড়াই হতে চলেছে বাম–কংগ্রেসের, তৈরি হচ্ছে তেমনই প্রার্থী তালিকা

  • সুতরাং যাদের সঙ্গে জোটে ছিল তাদের সঙ্গে মুখোমুখি লড়াই নামতে চলেছে দুই দল।

সীতারাম ইয়েচুরির কথাই বাস্তবায়িত করেছে বামেরা। ভোট শেষ, জোট শেষ নীতিতে বেশিরভাগ আসনেই প্রার্থী দিয়েছে বামফ্রন্ট। ১৪৪টি ওয়ার্ডের মধ্যে ১২৭টিতে প্রার্থী দিয়েছে তারা। আর ১৭টি আসন ছেড়ে রেখেছে। এবার কংগ্রেসও ১২০টি আসনে প্রার্থী দিতে চলেছে বলে সূত্রের খবর। সুতরাং যাদের সঙ্গে জোটে ছিল তাদের সঙ্গে মুখোমুখি লড়াই নামতে চলেছে দুই দল। আজই প্রকাশ হতে পারে কংগ্রেসের প্রার্থী তালিকা। তাই নিয়েই চলছে বিধান ভবনে বৈঠক।

ওই ১৭টি আসনে প্রার্থী দিতে পারে ভাইজানের দল। অর্থাৎ আইএসএফ। সুকৌশলে সেগুলি ছেড়ে রাখা হল বলে অনেকে মনে করছেন। আবার সেখানে কংগ্রেসও প্রার্থী দিতে পারে। পুরসভা নির্বাচনের প্রার্থী বাছাইয়ের জন্য একটি কমিটি তৈরি করেছে কংগ্রেস। আর তার মাথায় রাখা হয়েছে চেয়ারম্যান নেপাল মাহাতো–কে। এই জোটের বিষয়ে অধীর চৌধুরী আগেই জানিয়েছিলেন, কারও দয়ায় জোটের পথে যাবেন না তাঁরা। যেখানে জেতার ক্ষমতা আছে, সেখানে প্রার্থী দেওয়া হবে।

তবে একবার জোট করা আবার জোট ছেড়ে মুখোমুখি লড়াই করার জন্যই বাম–কংগ্রেসকে মানুষ বিশ্বাস করছেন না বলেই মত রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের। বামফ্রন্টের কলকাতা জেলার আহ্বায়ক কল্লোল মজুমদার বলেন, ‘বামফ্রন্ট আগে নিজস্ব শক্তির ভিত্তিতে কোথায় কোথায় লড়তে পারবে, তা স্থির করা হয়েছে। সব জায়গায় সংগঠন শক্ত নয়। সেখানে দাঁতে চেপে লড়াই করব। আমাদের দলের যে রাজনৈতিক প্রভাব তৈরি হয়েছে. সেই শক্তিকে ধরে রাখার জন্য কোথাও কোথাও আমরা শক্তি পরীক্ষা করব।’

এখন দেখার কংগ্রেস কোথায় কোথায় প্রার্থী দেয়। যদি দেখা যায় বেশিরভাগ জায়গায় মুখোমুখি লড়াই হচ্ছে তাহলে কলকাতা পুরসভা নির্বাচনে চতুর্মুখী লড়াই হবে। এমনকী আইএসএফ যদি পৃথক প্রার্তী দেয় তাহলে আবার কোথাও কোথাও পাঁচটি রাজনৈতিক দলের লড়াই হবে। কিন্তু এই ঘটনা যদি ঘটে তাহলে ভোট কাটাকাটির সম্ভাবনা চরমে উঠবে।

বন্ধ করুন