বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > ঘোড়ায় চড়ে রাজভবনের সামনে অভিনব প্রতিবাদ কংগ্রেসের, পেট্রপণ্যের দামবৃদ্ধির জের
ঘোড়ায় চেপে প্রতিবাদের সামিল হলেন কংগ্রেসের কর্মী–সমর্থকরা।

ঘোড়ায় চড়ে রাজভবনের সামনে অভিনব প্রতিবাদ কংগ্রেসের, পেট্রপণ্যের দামবৃদ্ধির জের

  • ঘোড়ায় চেপে প্রতিবাদের সামিল হলেন কংগ্রেসের কর্মী–সমর্থকরা। কেউ আবার এলেন রিকশায় চেপে।

পেট্রল–ডিজেলের দাম রেকর্ড স্পর্শ করেছে। কেরোসিন থেকে অটো–এলপিজি–তে কোপ পড়েছে। এই পরিস্থিতিতে অভিনব প্রতিবাদ করে দেখাল কংগ্রেস। কলকাতার রাজপথে রাজভবনের সামনে ঘোড়ায় চেপে এসে বিক্ষোভ দেখানো হল। বিগত ১২ দিনে ১০ বার বেড়েছে পেট্রপণ্যের দাম। তাই কংগ্রেসের এই বিক্ষোভ মিছিলে ঘোড়ায় চেপে প্রতিবাদের সামিল হলেন কংগ্রেসের কর্মী–সমর্থকরা। কেউ আবার এলেন রিকশায় চেপে।

ঠিক কী ঘটেছে রাজভবনের সামনে?‌ এদিন কংগ্রেসের রাজভবন অভিযান ঘিরে ধুন্ধুমার কাণ্ড ঘটে যায়। শনিবারের বিকেলে রাজভবনের সামনে অভিনব কায়দায় পেট্রপণ্যের মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে সুমন পালের নেতৃত্বে কংগ্রেসের বেশ কিছু মহিলা এবং পুরুষ কর্মী–সমর্থক মিছিল করে হাজির হন রাজভবনের সামনে। তাঁদের সঙ্গে ছিল কয়েকটি রিক্সা ও ঘোড়া। এই নিয়ে সরব হলেন কংগ্রেসের কর্মী–সমর্থকরা। শনিবার বিকেলে ঘোড়ায় চেপে কংগ্রেসের কর্মীদের প্রতিবাদ নজর কেড়েছে শহরবাসীর।

ঠিক কী বলা হয় মিছিল থেকে?‌ এই মিছিল থেকে কংগ্রেসের কর্মী–সমর্থকরা বলতে থাকেন, ‘‌ভোট প্রচার চলছে। কিন্তু মানুষের কিছুই হচ্ছে না। আমরা রাহুল গান্ধীর সৈনিক। মানুষের যখন অসুবিধা হবে, তখনই কংগ্রেস রাস্তায় নামবে। অধীর চৌধুরীর নেতৃত্বে আমরা রাস্তায় নেমেছি।’‌ এখন রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড় অসুস্থ হয়ে রাজভবনে রয়েছেন। এই পরিস্থিতিতে কংগ্রেসের কর্মী–সমর্থকরা রাজভবনের সামনে রাস্তার উপরেই বসে পড়েন এবং প্রতিবাদ জানাতে থাকেন। যদিও পুলিশকর্মীরা তাঁদের সেখান থেকে তুলে নিয়ে যান।

উল্লেখ্য, শনিবার পেট্রলের লিটার পিছু দাম ৮৪ পয়সা বেড়ে হয়েছে ১১২ টাকা ১৯ পয়সা। ডিজেলের দামও বেড়েছে ৮০ পয়সা। শনিবার কলকাতায় ডিজেলের নতুন দাম হয়েছে ৯৭ টাকা ০২ পয়সা। কেরোসিনের দাম একধাক্কায় ১৫ টাকা বাড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। অটো–এলপিজি’‌র দাম ৯ টাকা বাড়ানো হয়েছে। ফলে সাধারণ মানুষের নাভিশ্বাস উঠেছে।

বন্ধ করুন