বাড়ি > বাংলার মুখ > কলকাতা > সামনাসামনি দুই মিছিল, লাঠিচার্জ পুলিশের, সুলেখায় পথ অবরোধ
রণক্ষেত্র সুলেখা
রণক্ষেত্র সুলেখা

সামনাসামনি দুই মিছিল, লাঠিচার্জ পুলিশের, সুলেখায় পথ অবরোধ

সপ্তাহের প্রথম দিন সাধারণ মানুষের ভোগান্তি

ফের উত্তপ্ত যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয় চত্বর। এদিন যাদবপুরের মূলত বাম-প্রভাবিত ছাত্র ও এবিভিপির ছাত্রদের মিছিল সামনাসামনি এসে যায়। বারবার বলা সত্ত্বেও কেউ নিজের জায়গা থেকে সরতে চায়নি। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যেতে পারে, এই আশঙ্কায় মিছিলগুলিকে ছত্রভঙ্গ করতে লাঠিচার্জ করে পুলিশ। পুলিশের এই আচরণের প্রতিবাদে সুলেখার মোড়ে বিক্ষোভে বসেন প্রতিবাদী ছাত্র-ছাত্রীরা। সপ্তাহের প্রথম দিনেই ভোগান্তিতে পড়েন ওই ব্যস্ত রাস্তা দিয়ে যাতায়াত করা সাধারণ পড়ুয়ারা।



আটটা নাগাদ প্রথম লাঠিচার্জ করে বিজেপি সমর্থকদের ছত্রভঙ্গ করা হয়। এরপর রবিবার জেএনইউতে হওয়া নৈরাজ্যের প্রতিবাদ করা ছাত্রদেরও সরিয়ে দেওয়ার জন্য হাল্কা লাঠির ব্যবহার করে পুলিশ। পুলিশ সূত্রের দাবি যে এই ছাড়া কোনও উপায় ছিল না, কারণ অন্যদিক থেকে আবার সিপিআইএমের বড় একটি মিছিল আসছিল যেখানে বিজেপি ও জেইউ-র মিছিল সামনাসামনি ছিল।

এদিন জেএনইউ ঘটনার প্রতিবাদে যাদবপুর, প্রেসিডেন্সি সহ রাজ্যের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে মিছিল বেরোয়। অনেক জায়গায় বিভেদ ভুলে বিভিন্ন বামপন্থী সংগঠনগুলি একসঙ্গে প্রতিবাদ করে। তৃণমূলের ছাত্র পরিষদ আলাদা করে মিছিল করে বিভিন্ন জায়গায়। সব জায়গায় কাঠগোড়ায় দাঁড় করানো হয় এবিভিপি-র ছাত্রদের। কলকাতার মেয়ে জেএনইউ-র ছাত্র সংগঠনের সভাপতি ঐশী ঘোষের আহত হওয়ার ছবি ভাইরাল হওয়ায় আরও উত্তপ্ত হয়ে ওঠে সমবেত প্রতিবাদ।


বন্ধ করুন