বাড়ি > বাংলার মুখ > কলকাতা > আশঙ্কাজনক নয়াবাদের করোনা আক্রান্ত বৃদ্ধ

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত নয়াবাদের বৃদ্ধের শারীরিক অবস্থা বেশ আশঙ্কাজনক। বাইপাস লাগোয়া একটি বেসরকারি হাসপাতালের আইসিসিইউতে ভরতি আছেন তিনি।

হাসপাতাল সূত্রে খবর, ৬৬ বছরের ওই বৃদ্ধের শরীরে অক্সিজেনের পরিমাণ অত্যন্ত কমে গিয়েছে। বাইরে থেকে অক্সিজেনের সাপোর্ট দেওয়া হচ্ছে। এনিয়ে ক্রমাগত স্বাস্থ্য দফতরের প্রতিনিধিদের সঙ্গে যোগাযোগ রাখা হচ্ছে বলে হাসপাতাল সূত্রে খবর।

তবে কীভাবে তিনি সংক্রামিত হয়েছেন, তা নিয়ে ধন্দে রয়েছেন স্বাস্থ্য দফতরের আধিকারিকরা। রাষ্ট্রায়ত্ত সংস্থার অবসরপ্রাপ্ত ওই কর্মীর পরিবার জানিয়েছে, সম্প্রতি বিদেশেও যাননি তিনি। তবে এক আত্মীয়ের বিয়ে উপলক্ষ্যে গত ১২ মার্চ পূর্ব মেদিনীপুরের এগরায় যান তিনি। ১৪ মার্চ থেকে অসুস্থ বোধ করেছিলেন তিনি। যদিও দু'দিন পর দিঘায় যান। সেখানে গিয়ে জ্বর হওয়ায় আত্মীয়ের বাড়িতে ফিরে আসেন। সেখানে রক্ত পরীক্ষা করা হয়। টাইফয়েড ধরা পড়ে তাঁর। এরপর গত ২৩ মার্চ বাইপাসের লাগায়ো হাসপাতালটিতে তাঁকে ভরতি করা হয়।

প্রাথমিকভাবে জানা গিয়েছিল, সেই বিয়েবাড়িতে কয়েকজন বিদেশ ফেরত ব্যক্তিও নিমন্ত্রিত ছিলেন। কিন্তু স্বাস্থ্য দফতরের প্রতিনিধিরা এগরায় গিয়ে সেরকম কোনও খোঁজ পাননি। ভিন রাজ্য থেকে বিয়েতে কেউ এসেছিলেন তাও খতিয়ে দেখা হচ্ছে। তবে বিয়েবাড়িতে ৮০০ জনের মতো নিমন্ত্রিত ছিলেন। ফলে সেই যোগ খুঁজে বের করা খুব একটা সহজ হবে না বলে সূত্রের খবর।

তবে আরও একটি সম্ভাবনাও বিবেচনা করছে স্বাস্থ্য দফতর। সূত্রের খবর, কলকাতায় প্রথম করোনা আক্রান্ত তরুণের বাড়ি পঞ্চসায়র এলাকায়। সেখান থেকে নয়াবাদের দূরত্বও বেশি নয়। ওই বৃদ্ধ কোনওভাবে আমলা-পুত্রের সংস্পর্শে এসেছিলেন কিনা, তা জানার চেষ্টা করা হচ্ছে বলে সূত্রের খবর।

বন্ধ করুন