বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > সাংসদ মহুয়া মিত্রের মন্তব্যে আমরা লজ্জিত, প্রবাসী চিকিৎসকদের খোলা চিঠি গুণীজনদের
ফাইল ছবি
ফাইল ছবি

সাংসদ মহুয়া মিত্রের মন্তব্যে আমরা লজ্জিত, প্রবাসী চিকিৎসকদের খোলা চিঠি গুণীজনদের

  • মহুয়া মৈত্রের এই মন্তব্যকে নিন্দনীয় বলে পালটা বিবৃতি প্রকাশ করলেন বিদ্বজ্জনেরা।

প্রবাসী চিকিৎসকদের প্রতি তৃণমূল সাংসদ মহুয়া মিত্রের সমালোচনায় সরব হয়েন পশ্চিমবঙ্গের ৭৫ জন স্বনামধন্য ব্যক্তি। এদের মধ্যে রয়েছেন শিল্পী, সাহিত্যিক, বিজ্ঞানী ও শিক্ষকরা। সমস্বরে মহুয়ার মন্তব্যকে ‘অপরিণত ও প্রতিহিংসামূলক’ বলে উল্লেখ করেছেন তাঁরা। 

সম্প্রতি পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে একটি চিঠি লেখেন ১১ জন প্রবাসী চিকিৎসক। তাতে করোনা মোকাবিলায় পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রীকে একগুচ্ছ পরামর্শ দেন তাঁরা। সঙ্গে জানান, পশ্চিমবঙ্গে করোনা সংক্রান্ত তথ্য প্রকাশে আরও স্বচ্ছতা আনা উচিত। 

সেই চিঠির জবাবে তৃণমূল সাংসদ মহুয়া মৈত্র টুইটে লেখেন, ‘আপনাদের প্রতি সম্মান রেখেই বলছি আপনারা যে সব দেশে কর দেন সেখানে মৃত্যুর হার ভারতের থেকে অনেক বেশি। সেখানকার গভর্নর, প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বা ব্রিটিশ স্বাস্থ্যসচিবকে চিঠি দিচ্ছেন না কেন? আপনারা যে যে দেশে আছেন সেখানেই কাজ করুন।’

মহুয়া মৈত্রের এই মন্তব্যকে নিন্দনীয় বলে পালটা বিবৃতি প্রকাশ করলেন বিদ্বজ্জনেরা। তারা লিখেছেন, ‘মহামারীর এই সংকটকালে একজন সাংসদের এই মন্তব্যে আমরা লজ্জিত।’ চলচ্চিত্র নির্মাতা বুদ্ধদেব দাশগুপ্ত, তরুণ মজুমদার, কমলেশ্বর মুখোপাধ্যায়, সুমন মুখোপাধ্যায়, চিত্রশিল্পী ওয়াসিম কাপুর, অভিনেতা সব্যসাচী চক্রবর্তী, সংগীত পরিচালক দেবজ্যোতি মিশ্র, অধ্যাপক অম্বিকেশ মহাপাত্র, শিক্ষাবিদ পবিত্র সরকার এই বিবৃতিতে সই করেছেন। 

বিবৃতিতে তাঁরা আশঙ্কা প্রকাশ করে লিখেছেন, ‘একজন সাংসদের এহেন মন্তব্য ভবিষ্যতে প্রবাসী ভারতীদের দেশের জন্য পরামর্শ দেওয়ার আগে পাঁচ বার ভাবতে বাধ্য করবে। এই মুহূর্তে রাজনীতির উর্ধ্বে উঠে বিশেষজ্ঞদের মতামত শোনা উচিত।‘ 

প্রবাসী চিকিৎসকদের প্রতি তৃণমূল সাংসদ মহুয়া মিত্রের সমালোচনায় সরব হয়েন পশ্চিমবঙ্গের ৭৫ জন স্বনামধন্য ব্যক্তি। এদের মধ্যে রয়েছেন শিল্পী, সাহিত্যিক, বিজ্ঞানী ও শিক্ষকরা। সমস্বরে মহুয়ার মন্তব্যকে ‘অপরিণত ও প্রতিহিংসামূলক’ বলে উল্লেখ করেছেন তাঁরা। 

সম্প্রতি পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে একটি চিঠি লেখেন ১১ জন প্রবাসী চিকিৎসক। তাতে করোনা মোকাবিলায় পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রীকে একগুচ্ছ পরামর্শ দেন তাঁরা। সঙ্গে জানান, পশ্চিমবঙ্গে করোনা সংক্রান্ত তথ্য প্রকাশে আরও স্বচ্ছতা আনা উচিত। 

সেই চিঠির জবাবে তৃণমূল সাংসদ মহুয়া মৈত্র টুইটে লেখেন, ‘আপনাদের প্রতি সম্মান রেখেই বলছি আপনারা যে সব দেশে কর দেন সেখানে মৃত্যুর হার ভারতের থেকে অনেক বেশি। সেখানকার গভর্নর, প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বা ব্রিটিশ স্বাস্থ্যসচিবকে চিঠি দিচ্ছেন না কেন? আপনারা যে যে দেশে আছেন সেখানেই কাজ করুন।’

মহুয়া মৈত্রের এই মন্তব্যকে নিন্দনীয় বলে পালটা বিবৃতি প্রকাশ করলেন বিদ্বজ্জনেরা। তারা লিখেছেন, ‘মহামারীর এই সংকটকালে একজন সাংসদের এই মন্তব্যে আমরা লজ্জিত।’ চলচ্চিত্র নির্মাতা বুদ্ধদেব দাশগুপ্ত, তরুণ মজুমদার, কমলেশ্বর মুখোপাধ্যায়, সুমন মুখোপাধ্যায়, চিত্রশিল্পী ওয়াসিম কাপুর, অভিনেতা সব্যসাচী চক্রবর্তী, সংগীত পরিচালক দেবজ্যোতি মিশ্র, অধ্যাপক অম্বিকেশ মহাপাত্র, শিক্ষাবিদ পবিত্র সরকার এই বিবৃতিতে সই করেছেন। 

বিবৃতিতে তাঁরা আশঙ্কা প্রকাশ করে লিখেছেন, ‘একজন সাংসদের এহেন মন্তব্য ভবিষ্যতে প্রবাসী ভারতীদের দেশের জন্য পরামর্শ দেওয়ার আগে পাঁচ বার ভাবতে বাধ্য করবে। এই মুহূর্তে রাজনীতির উর্ধ্বে উঠে বিশেষজ্ঞদের মতামত শোনা উচিত।‘ 

 

 

বন্ধ করুন