প্রতীকি ছবি
প্রতীকি ছবি

করোনায় আক্রান্ত বেলেঘাটা ID-র চিকিৎসক, গুজব ছড়িয়ে গ্রেফতারির মুখে তরুণী

  • রাজ্য স্বাস্থ্য দফতরের তরফে জানানো হয়েছে, ওই পোস্টে দাবি করা তথ্যের কোনও সারবত্তা নেই।

করোনাভাইরাস সংক্রমণ নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় ভুয়ো খবর ছড়ানোর অভিযোগে এক যুবতীর বিরুদ্ধে FIR দায়ের করল কলকাতা পুলিশের সাইবার ক্রাইম বিভাগ। বেলেঘাটা আইডি হাসপাতালের এক চিকিৎসকের করোনাভাইরাস সংক্রমণ ঘটেছে বলে গুজব ছড়ানোর অভিযোগ রয়েছে তাঁর বিরুদ্ধে। স্বাস্থ্য দফতরের তরফে জানানো হয়েছে, পশ্চিমবঙ্গে কোনও চিকিৎসক বা স্বাস্থ্যকর্মী করোনাভাইরাসের চিকিৎসা করতে গিয়ে সংক্রমণের শিকার হননি।

সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয় একটি পোস্ট। তাতে দাবি করা হয়, যোগীরাজ নামে বেলেঘাটা আইডি হাসপাতালের এক মেডিক্যাল অফিসারের করোনাভাইরাস সংক্রমণ হয়েছে। ঝড়ের মতো সেই পোস্ট শেয়ার করতে শুরু করেন নেটিজেনরা। বিষয়টি তদন্ত করে দেখতে কলকাতা পুলিশের সাইবার ক্রাইম বিভাগকে দায়িত্ব দেয় স্বাস্থ্য দফতর।

রাজ্য স্বাস্থ্য দফতরের তরফে জানানো হয়েছে, ওই পোস্টে দাবি করা তথ্যের কোনও সারবত্তা নেই। পশ্চিমবঙ্গে কোনও চিকিৎসক বা স্বাস্থ্যকর্মী করনোভাইরাসের চিকিৎসা করতে গিয়ে সংক্রমণের শিকার হননি। চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মীদের সংক্রমণ এড়াতে WHO-র নির্দেশিকা অক্ষরে অক্ষরে মেনে চলছে রাজ্য স্বাস্থ্য দফতর।

ফেসবুকে ভাইরাল হওয়া ভুয়ো পোস্ট।
ফেসবুকে ভাইরাল হওয়া ভুয়ো পোস্ট।


সূত্রের খবর, ইতিমধ্যে চিহ্নিত করা হয়েছে ওই ভুয়ো পোস্টের কুশীলবকে। তাঁকে গ্রেফতার করার প্রস্তুতি নিচ্ছে কলকাতা পুলিশের সাইবার ক্রাইম বিভাগ। কেন বিপদের সময় এমন বিভ্রান্তি তিনি ছড়ানোর চেষ্টা করলেন তাও জানার চেষ্টা করছেন সাইবার ক্রাইম বিভাগের গোয়েন্দারা।

বলে রাখি, করোনাভাইরাস নিয়ে গুজব ছড়ালে কড়া ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানিয়েছিল রাজ্য প্রশাসন। পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীও এব্যাপারে সাধারণ মানুষকে বারবার সতর্ক করেছেন।



বন্ধ করুন