বাড়ি > বাংলার মুখ > কলকাতা > ‘ঠিক চিকিৎসা হচ্ছে না’ মেডিক্যাল কলেজ থেকে বেরিয়ে বাড়ির পথ ধরলেন করোনা রোগী
কলকাতা মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতাল (ফাইল ছবি, সৌজন্য ফেসবুক)
কলকাতা মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতাল (ফাইল ছবি, সৌজন্য ফেসবুক)

‘ঠিক চিকিৎসা হচ্ছে না’ মেডিক্যাল কলেজ থেকে বেরিয়ে বাড়ির পথ ধরলেন করোনা রোগী

  • এর পর তাঁকে ওয়ার্ডে ফিরে যেতে অনুরোধ করেন হাসপাতালের কর্মীরা। জবাবে বৃদ্ধ যা বলেন তাতে সবার চোখ কপালে ওঠার জোগাড়। তাঁর দাবি, হাসপাতালে চিকিৎসায় তিনি খুশি নন। তাই বাড়ি ফিরতে চান।

ফের প্রশ্নের মুখে পশ্চিমবঙ্গের হাসপাতালে করোনা রোগীদের নিরাপত্তা। ফের হাসপাতাল থেকে বাইরে বেরিয়ে এলেন এক রোগী। এবার ঘটনা রাজ্যের অন্যতম প্রধান করোনা চিকিৎসা কেন্দ্র কলকাতা মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালের। শুক্রবার দুপুরে এই ঘটনায় হাসপাতাল চত্বরে হুলুস্থুল পড়ে। কোনও ক্রমে হাতে পায়ে ধরে রোগীকে ওয়ার্ডে ফেরান হাসপাতালের কর্মীরা। 

জানা গিয়েছে, মেডিক্যাল কলেজের গ্রিন বিল্ডিংয়ের ছ তলায় করোনা ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন ছিলেন ৬৫ বছর বয়সী ওই বৃদ্ধ। এদিন হঠাৎই নিরাপত্তারক্ষীদের চোখ এড়িয়ে হাসপাতাল থেকে বেরিয়ে পড়েন তিনি। কিন্তু লকডাউন থাকায় গাড়িঘোড়া কিছু পাননি। ফলে হাসপাতালের সামনে ক্যাফেটেরিয়ায় বসে পড়েন। এর মধ্যে ওয়ার্ডে বৃদ্ধের খোঁজ শুরু হয়। না পেয়ে বাইরে খোঁজাখুঁজি শুরু করেন হাসপাতালের কর্মীরা। দেখা যায় ক্যাফেটেরিয়ার বেঞ্চে বসে রয়েছেন তিনি।

এর পর তাঁকে ওয়ার্ডে ফিরে যেতে অনুরোধ করেন হাসপাতালের কর্মীরা। জবাবে বৃদ্ধ যা বলেন তাতে সবার চোখ কপালে ওঠার জোগাড়। তাঁর দাবি, হাসপাতালে চিকিৎসায় তিনি খুশি নন। তাই বাড়ি ফিরতে চান। অনেক অনুনয় বিনয়ে শেষ পর্যন্ত ওয়ার্ডে ফেরেন তিনি। 

হাসপাতাল সূত্রে জানা গিয়েছে, বৃদ্ধের বাড়ি উত্তর ২৪ পরগনার নিমতায়। দিন কয়েক আগে তাঁকে করোনা আক্রান্ত অবস্থায় কলকাতা মেডিক্যাল কলেজে ভর্তি করা হয়েছিল। 

মেডিক্যাল কলেজে করোনা ওয়ার্ডে রোগীদের অবাক করা আচরণ যদিও নতুন নয়। এর আগে জানলার কার্নিশে পা ঝুলিয়ে বসে থাকতে দেখা গিয়েছিল এক রোগীকে। কোনও ক্রমে তাঁকে উদ্ধার করেন হাসপাতালের কর্মীরা। এবার একেবারে হাসপাতাল থেকে বেরিয়ে পড়লেন রোগী।

 

বন্ধ করুন