বাড়ি > বাংলার মুখ > কলকাতা > করোনা আক্রান্ত এগরার বিধায়ক সমরেশ দাসের শারীরিক অবস্থার অবনতি
সমরেশ দাস
সমরেশ দাস

করোনা আক্রান্ত এগরার বিধায়ক সমরেশ দাসের শারীরিক অবস্থার অবনতি

  • সমরেশবাবু আগে থেকেই একাধিক উপসর্গে ভুগছিলেন। তাঁর হৃদযন্ত্রে সমস্যা রয়েছে। হাঁপানির উপসর্গ রয়েছে তাঁর।

করোনা আক্রান্ত তৃণমূল বিধায়ক সমরেশ দাসের শারীরিক অবস্থার অবনতি হয়েছে। বর্তমানে তিনি কলকাতার বেলেঘাটা আইডি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। হাসপাতাল সূত্রে জানা গিয়েছে, তাঁকে ভেন্টিলেশনে রাখা হয়েছে। তাঁর শারীরিক অবস্থার ওপর ২৪ ঘণ্টা নজর রাখছেন চিকিৎসকরা। 

সমরেশবাবু আগে থেকেই একাধিক উপসর্গে ভুগছিলেন। তাঁর হৃদযন্ত্রে সমস্যা রয়েছে। হাঁপানির উপসর্গ রয়েছে তাঁর। তার ওপর তাঁর বয়স ৭০ পার করেছে। করোনা সংক্রমণের জেরে তাঁর ঝুঁকির পরিমান যথেষ্ট। 

গত ১৮ জুলাই এগরার তৃণমূল বিধায়ক সমরেশবাবুর করোনা সংক্রমণ ধরা পড়ে। প্রথমে তাঁকে পাঁশকুড়ার করোনা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে তাঁকে কলকাতায় স্থানান্তরিত করার পরামর্শ দেন চিকিৎসকরা। এর পর তাঁকে বেলেঘাটা আইডিতে স্থানান্তরিত করা হয়। কিন্তু সেখানেও ঘটনাক্রমের কোনও বদল ঘটেনি। 

 

করোনা আক্রান্ত তৃণমূল বিধায়ক সমরেশ দাসের শারীরিক অবস্থার অবনতি হয়েছে। বর্তমানে তিনি কলকাতার বেলেঘাটা আইডি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। হাসপাতাল সূত্রে জানা গিয়েছে, তাঁকে ভেন্টিলেশনে রাখা হয়েছে। তাঁর শারীরিক অবস্থার ওপর ২৪ ঘণ্টা নজর রাখছেন চিকিৎসকরা। 

সমরেশবাবু আগে থেকেই একাধিক উপসর্গে ভুগছিলেন। তাঁর হৃদযন্ত্রে সমস্যা রয়েছে। হাঁপানির উপসর্গ রয়েছে তাঁর। সেক্ষেত্রে করোনা সংক্রমণের জেরে তাঁর ঝুঁকির পরিমান যথেষ্ট। 

গত ১৮ জুলাই এগরার তৃণমূল বিধায়ক সমরেশবাবুর করোনা সংক্রমণ ধরা পড়ে। প্রথমে তাঁকে পাঁশকুড়ার করোনা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে তাঁকে কলকাতায় স্থানান্তরিত করার পরামর্শ দেন চিকিৎসকরা। এর পর তাঁকে বেলেঘাটা আইডিতে স্থানান্তরিত করা হয়। কিন্তু সেখানেও ঘটনাক্রমের কোনও বদল ঘটেনি। 

 

বন্ধ করুন