বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > ‘‌নির্বাচন ছিল, মোর্চা ছিল, নির্বাচন শেষ, মোর্চাও শেষ’‌, স্পষ্ট করলেন ইয়েচুরি
সীতারাম ইয়েচুরি। (ছবি সৌজন্য পিটিআই)
সীতারাম ইয়েচুরি। (ছবি সৌজন্য পিটিআই)

‘‌নির্বাচন ছিল, মোর্চা ছিল, নির্বাচন শেষ, মোর্চাও শেষ’‌, স্পষ্ট করলেন ইয়েচুরি

  • বামেদের মধ্যে শরিকরাও এই সংযুক্ত মোর্চার সঙ্গে থাকতে রাজি ছিলেন না। তা নিয়ে রীতিমতো বড় শরিকের সঙ্গে ঝগড়াঝাটি শুরু হয়েছিল।

সংযুক্ত মোর্চার আর কোনও অস্তিত্ব আছে?‌ এই প্রশ্নই উঠতে শুরু করেছিল ভোট পরবর্তী কেন্দ্রীয় কমিটির বৈঠকের পর থেকে। সেখানে সীতারাম ইয়েচুরি বলেছিলেন, এই মোর্চা সারাজীবনের জন্য নয়। নির্বাচনের নিরিখে তা তৈরি হয়েছিল। এবার আরও একধাপ এগিয়ে খেলে দিলেন সিপিআইএমের সাধারণ সম্পাদক সীতারাম ইয়েচুরি। আর তাতেই সংযুক্ত মোর্চার ভবিষ্যতে ইতি পড়ল। কারণ আজ তিনি বলেন, ‘‌মোর্চা ছিল ইলেকশনের জন্য। ও তো হয়ে গিয়েছে। ইলেকশন শেষ তো চর্চা শেষ।’‌

বামেদের মধ্যে শরিকরাও এই সংযুক্ত মোর্চার সঙ্গে থাকতে রাজি ছিলেন না। তা নিয়ে রীতিমতো বড় শরিকের সঙ্গে ঝগড়াঝাটি শুরু হয়েছিল। শুক্রবার সাংবাদিক বৈঠক করে সীতারাম ইয়েছুরি বলেন, ‘‌নির্বাচন ছিল, মোর্চা ছিল। নির্বাচন শেষ, মোর্চাও শেষ।’‌ কিন্তু এটা তো একপ্রকার দ্বিচারিতা। সেটা কেন করা হল? উত্তরে সীতারাম ইয়েচুরি উদাহরণ তুলে বলেন, ‘জনতা পার্টি এসেছিল ইন্দিরা গান্ধীকে হারাতে। হারিয়ে দিল তারপর জনতা পার্টি শেষ। ইমিডিয়েট পারপাসের জন্য ফ্রন্ট তৈরি হয়। ইভেন্ট শেষ হলে পারপাস থাকে না।’‌

উল্লেখ্য, এখন উপনির্বাচনে এবং দুই কেন্দ্রের নির্বাচনে বামফ্রন্টের নেতৃত্বে প্রার্থী দেওয়া হয়েছে। সেখানে কোনও সংযুক্ত মোর্চা স্থান পায়নি। একুশের নির্বাচনে বিজেপি–তৃণমূল কংগ্রেসের বিরুদ্ধে লড়াই করার জন্য সিপিআইএম, কংগ্রেস এবং আইএসএফ একজোট হয়েছিল। একটিমাত্র আসন পেয়েছে আইএসএফ। কিন্তু এখন তাদের সঙ্গে সম্পর্ক চিড় খেয়েছে।

নির্বাচনের পরে কেন্দ্রীয় কমিটির বৈঠকে সীতারাম ইয়েচুরি, প্রকাশ কারাতরা সাফ জানিয়ে দেন, নির্বাচনের সময় মোর্চা গঠন হয়েছিল। তবে তা কখনওই দীর্ঘস্থায়ী জোট হতে পারে না। এই মন্তব্যের পর থেকেই প্রশ্নের মুখে পড়েছিল জোট। আর শুক্রবার জোটের ভবিষ্যতে অন্ধকার নেমে এলো বলে মনে করছেন রাজনৈতিক কুশীলবরা।

বন্ধ করুন