বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > ধনখড়ের সামনে কেন্দ্র ও রাজ্যের সমালোচনায় সরব হয়েছেন বুদ্ধবাবু, খবর CPIM সূত্রে
শয্যাশায়ী বুদ্ধদেব। শনিবার রাজভবন থেকে প্রকাশিত ছবি।
শয্যাশায়ী বুদ্ধদেব। শনিবার রাজভবন থেকে প্রকাশিত ছবি।

ধনখড়ের সামনে কেন্দ্র ও রাজ্যের সমালোচনায় সরব হয়েছেন বুদ্ধবাবু, খবর CPIM সূত্রে

  • কেন্দ্রের বিজেপি সরকার ও রাজ্যের তৃণমূল সরকার গরিব মানুষের স্বার্থবিরোধী কাজ করছে বলে জানিয়েছেন তিনি।

শনিবার অষ্টমীর সন্ধ্যায় পশ্চিমবঙ্গের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে তাঁর বাসভবনে গিয়ে সাক্ষাৎ করেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়। বেরিয়ে জানান, প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে রাজ্যের সাম্প্রতিক রাজনৈতিক পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা হয়েছে তাঁর। তবে কী আলোচনা হয়েছে তা বিস্তারে জানাতে অস্বীকার করেন তিনি। আলিমুদ্দিন সূত্রের খবর, রাজ্যপালের সামনে রাজ্য ও কেন্দ্রীয় সরকার উভয়েরই নীতি ও ভূমিকার সমালোচনা করেছেন বুদ্ধবাবু। দুই সরকারই গরিব মানুষের স্বার্থ বিরোধী কাজ করছেন বলে রাজ্যপালকে জানিয়েছেন তিনি। 

শনিবার সন্ধ্যায় বুদ্ধবাবুর পাম অ্যাভিনিউর বাসভবনে তাঁর সঙ্গে দেখা করতে যান রাজ্যপাল। সন্ধে ৬টা নাগাদ সেখানে পৌঁছন তিনি। তাঁকে স্বাগত জানান প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীর স্ত্রী মীরা ভট্টাচার্য। প্রায় ৩০ মিনিট বুদ্ধবাবুর বাড়িতে ছিলেন তিনি। বেরিয়ে সংবাদমাধ্যমের সামনে বুদ্ধবাবুর ভূয়সী প্রশংসা করেন তিনি। 

রাজ্যপাল বলেন, ‘বুদ্ধবাবু অত্যন্ত অভিজ্ঞ একজন রাজনীতিবিদ। তিনি পশ্চিমবঙ্গের একজন জীবন্ত সজ্জন ব্যক্তি। তাঁর সঙ্গে কথা বলে উদ্দীপ্ত ও অনুপ্রাণিত হই। তাঁর সঙ্গে আমার রাজ্যের সাম্প্রতিক পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা হয়েছে। এর থেকে বেশি কিছু বলা ঠিক হবে না। ওঁর সুস্থতা কামনা করি।’

এর পরই আলিমুদ্দিন সূত্রে জানা যায়, রাজ্যপালের সামনে রাজ্য ও কেন্দ্রীয় সরকারের সমালোচনা করেছেন বুদ্ধবাবু। কেন্দ্রের বিজেপি সরকার ও রাজ্যের তৃণমূল সরকার গরিব মানুষের স্বার্থবিরোধী কাজ করছে বলে জানিয়েছেন তিনি। উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন রাজ্যের সাম্প্রতিক বেশ কিছু ঘটনাবলী নিয়ে। 

সাক্ষাতের পর শনিবার অশক্ত বুদ্ধবাবুর যে ছবি রাজ্যপাল টুইট করেছেন তার সমালোচনা করেছে সিপিএম। প্রচারবিমুখ বুদ্ধবাবুর ছবি এভাবে প্রকাশ্যে আনা উচিত হয়নি বলে জানিয়েছেন সিপিএম নেতা মহম্মদ সেলিম।

 

বন্ধ করুন