বাড়ি > বাংলার মুখ > কলকাতা > পশ্চিমবঙ্গে বিশ্বের বৃহত্তম ‘‌সৌর গাছ’‌ বসাল CMERI, পিছিয়ে পড়ল লন্ডন
পশ্চিমবঙ্গের সেন্ট্রাল মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং রিসার্চ ইন্সটিটিউটে ‘‌সৌর গাছ’‌।
পশ্চিমবঙ্গের সেন্ট্রাল মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং রিসার্চ ইন্সটিটিউটে ‘‌সৌর গাছ’‌।

পশ্চিমবঙ্গে বিশ্বের বৃহত্তম ‘‌সৌর গাছ’‌ বসাল CMERI, পিছিয়ে পড়ল লন্ডন

  • CMERI–এর সৌর গাছে এমন ৩৫টি প্যানেল রয়েছে যার প্রত্যেকটি ৩৩০ ওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদন করে।

বিশ্বের বৃহত্তম ‘‌সৌর গাছ’‌ উদ্ভাবন করে তাক লাগিয়ে দিল পশ্চিমবঙ্গের সেন্ট্রাল মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং রিসার্চ ইন্সটিটিউট (CMERI)। এখানকার বিজ্ঞানীদের দাবি, তাঁদের গবেষণা অনুযায়ী এটিই পৃথিবীর সবচেয়ে বড় সৌর গাছ যা প্রায় ১১,৫০০ ওয়াট বা ১১.‌৫ কিলোওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদন করতে সক্ষম।

কাউন্সিল অফ সায়েন্টিফিক অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিয়াল রিসার্চের (‌CSIR) ‌অন্তর্ভুক্ত দেশের শীর্ষস্থানীয় গবেষণামূলক এই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ডিরেক্টর হরিশ হিরানি জানান, দ্বিতীয় বৃহত্তম সৌর গাছটি রয়েছে লন্ডনে, যা প্রায় ৮.‌৬ কিলোওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদন করতে সক্ষম।

সৌর গাছ হল গাছের আকারে গড়ে ওঠা একটি ধাতব কাঠামো যার শাখায় সোলার প্যানেল সংযুক্ত করা রয়েছে। ওই সোলার প্যানেল বা সৌর প্যানেলগুলি সৌরবিদ্যুৎ উৎপাদন করে। CMERI–এর সৌর গাছে এমন ৩৫টি প্যানেল রয়েছে যার প্রত্যেকটি ৩৩০ ওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদন করে।

CMERI–এর ডিরেক্টর হরিশ হিরানি আরও বলেন, ‘‌একটি সৌর গাছ দূষণহীনভাবে বছরে প্রায় ১২ থেকে ১৪ হাজার ইউনিট বিদ্যুৎ উৎপাদন করে। এবং এতে ১০–১২ টন কার্বন ডাই অক্সাইড বায়ুমণ্ডলে ছড়িয়ে পড়তে পারে না। বায়ুদূষণ অনেকটাই কম হয়।’‌

বিশাল পরিমাণ অপ্রচলিত শক্তি উৎপাদন করতে সক্ষম এই সৌর গাছগুলি তৈরি করতে প্রধানত একটাই সমস্যা দেখা দেয়, তা হল প্রয়োজনীয় জায়গার অভাব। এই সৌর গাছের শাখাগুলিতে ছড়িয়ে–ছিটিয়ে থাকা সৌর প্যানেলগুলি দ্বারা যতটা বিদ্যুৎ উৎপাদন করিয়ে নেওয়া যায় তা ছাদে বসানো সৌর প্যানেলে করা সম্ভব নয়। CMERI–এ এই সৌর গাছটি তৈরি করতে খরচ পড়েছে প্রায় সাড়ে ৭ লক্ষ টাকা।

অপ্রচলিত শক্তি বিশেষজ্ঞ ও গ্রিন অস্কার পুরস্কারপ্রাপ্ত এসপি গন চৌধুরী জানান, খুব কম জায়গার মধ্যে অনেক বেশি ইউনিট বিদ্যুৎ উৎপাদন করতে পারে সৌর গাছগুলি। কিন্তু সৌর গাছ তৈরিতে অন্যতম প্রধান বাধা হল এর মূলধন বিনিয়োগ। এর জেরে সৌর গাছে উৎপাদিত এক ইউনিট বিদ্যুতের খরচ অনেক বেশি হয়ে দাঁড়ায়। ছাদে সৌর প্যানেল বসানোর দ্বিগুণ খরচ পড়ে সৌর গাছ তৈরি করতে। তাই এতে এক ইউনিট বিদ্যুৎ উৎপাদন করতে সাড়ে ৩ টাকা খরচ পড়ে।

CMERI–এর বৈজ্ঞানিকরা জানান, সৌর গাছের প্যানেলগুলি ডিজেলের বিকল্প হিসেবে বিভিন্ন কৃষিক্ষেত্রে পাম্প, ই–ট্রাক্টর, টিলার চালাতে ব্যবহার করা যেতে পারে। এবং এতে উৎপাদিত অতিরিক্ত বিদ্যুৎ গ্রিডে পাঠানো যেতে পারে, যা পরে কৃষকদের কাজেই লাগবে। হরিশ হিরানির মতে, ভারতে কার্বনহীন বিদ্যুৎ উৎপাদনের ক্ষেত্রে সৌর গাছ একটি বিশাল সাফল্য।

বন্ধ করুন