বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > CV Ananda Bose: হিংসা রুখতে সরকারের সব রকম চেষ্টা করা উচিত, বর্ষপূর্তির আগে বললেন রাজ্যপাল

CV Ananda Bose: হিংসা রুখতে সরকারের সব রকম চেষ্টা করা উচিত, বর্ষপূর্তির আগে বললেন রাজ্যপাল

রাজ্যপাল সিভি আনন্দ বোস। (PTI)

রাজ্য – রাজভবন সংঘাতের বিষয়টি অস্বীকার করে রাজ্যপাল বলেন, ‘সংবাদমাধ্যম জিনিসটাকে যেমনভাবে দেখায় বিষয়টা তেমন নয়। আমার সঙ্গে সরকারের তেমন কোনও বিবাদ নেই। আমরা প্রত্যেকে আইন মেনে চলতে বাধ্য।

রাজ্যে দুর্নীতিতে সরকার জড়িত বলে মনে করি না। তবে কোনও রাজনৈতিক দল যুক্ত থাকতে পারে। আর তেমনটা হলে সরকারের উচিত তাদের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ করা। মঙ্গলবার পশ্চিমবঙ্গের রাজ্যপাল হিসাবে তাঁর বর্ষপূর্তিতে সংবাদমাধ্যমকে এই প্রতিক্রিয়া দিলেন রাজ্যপাল সিভি আনন্দ বোস। এদিন রাজ্য – রাজ্যপাল সংঘাতের বিষয়টিও অস্বীকার করেন তিনি।

গত বছর ২৩ নভেম্বর পশ্চিমবঙ্গের রাজ্যপালের দায়িত্বভার গ্রহণ করেছিলেন দুঁদে কেন্দ্রীয় আমলা সিভি আনন্দ বোস। বৃহস্পতিবার তার বর্ষপূর্তি হতে চলেছে। তার আগে সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে দুর্নীতির কথা স্বীকার করলেও নিজেকে রাজনৈতিক বিতর্ক থেকে দূরে রাখার আপ্রাণ চেষ্টা করলেন রাজ্যপাল। এদিন আনন্দ বোস বলেন, ‘এই এক বছরে আমার মনে হয়েছে সন্ত্রাস ও দুর্নীতি পশ্চিমবঙ্গের জন্য বড় ইস্যু। সমাজ বা প্রশাসন দুর্নীতি করছে এমনটা বলছি না। কিন্তু দুর্নীতির অস্তিত্ব রয়েছে। তবে তার সঙ্গে সরকার যুক্ত বলে আমার মনে হয় না। কোনও রাজনৈতিক দল যুক্ত থাকতে পারে। তেমনটা হলে সরকারের উচিত তাদের বিরুদ্ধে কড়া পদক্ষেপ করা।’ হিংসা রুখতে রাজ্য সরকারের সব রকম পদক্ষেপ করা উচিত বলে মন্তব্য করেন রাজ্যপাল।

রাজ্য – রাজভবন সংঘাতের বিষয়টি অস্বীকার করে রাজ্যপাল বলেন, ‘সংবাদমাধ্যম জিনিসটাকে যেমনভাবে দেখায় বিষয়টা তেমন নয়। আমার সঙ্গে সরকারের তেমন কোনও বিবাদ নেই। আমরা প্রত্যেকে আইন মেনে চলতে বাধ্য। তবে পরস্পরের প্রতি সম্মান থাকলে কাজটা করতে সুবিধা হয়। আমরা দুজনেই জনগণের কাছে দায়বদ্ধ।’

রাজ্যের দায়িত্বে আসার পর রাজ্যপাল সিভি আনন্দ বোসের সঙ্গে সরকারের সম্পর্ক ছিল অত্যন্ত মধুর। এমনকী মুখ্যমন্ত্রীর ভূয়সী প্রশংসা শোনা গিয়েছিল তাঁর কণ্ঠে। কিন্তু সময় যত কেটেছে ততই পরস্পরের বিরোধিতা প্রকট হয়েছে। তবে বর্ষপূর্তির প্রাক্কালে সেই বিষয়টি আড়ালেই রাখতে চাইলেন রাজ্যপাল।

বন্ধ করুন