বাড়ি > বাংলার মুখ > কলকাতা > মেডিক্যাল কলেজের করোনা ওয়ার্ডে রমরমা দালালরাজ, টাকা না দিলে রোগীকে খুনের হুমকি
ফাইল ছবি
ফাইল ছবি

মেডিক্যাল কলেজের করোনা ওয়ার্ডে রমরমা দালালরাজ, টাকা না দিলে রোগীকে খুনের হুমকি

  • প্রতিবেদনে দাবি করা হয়েছে মেডিক্যাল কলেজে সিসিইউ-র বেড পাইয়ে দিতে ১২,০০০ টাকা পর্যন্ত দাবি করছে দালালরা। এক রোগীর আত্মীয়ের বয়ানে, শেষ পর্যন্ত ৫০০০ টাকায় রফা হয়।

করোনা চিকিৎসাকেন্দ্র কলকাতা মেডিক্যাল কলেজেও বেআব্রু দালালরাজ। সেখানে রোগীদের সিসিইউ-র বেড পাইয়ে দিতে মোটা টাকা দাবি করছেন একশ্রেণির কর্মী। টাকা না দিলে অক্সিজেনের নল খুলে রোগীকে মেরে ফেলার হুমকি দিচ্ছেন হাসপাতালের ওই কর্মীরা। এমনকী রোগীকে জল, বিস্কুট ইত্যাদি পৌঁছে দিতেও কর্মীদের হাতে গুঁজে দিতে হচ্ছে টাকা। এমনই দাবি করা হয়েছে Zee ২৪ ঘণ্টার প্রতিবেদনে। 

করোনা ওয়ার্ডে রোগীর আত্মীয়দের ঢোকা নিষিদ্ধ। ফলে রোগীকে খাবার বা জল পৌঁছে দিতে ভরসা সেখানকার চতুর্থ শ্রেণির কর্মীরাই। এই সুযোগে রোগীর আত্মীয়দের কাছ থেকে মোটা টাকা আদায় করছেন চুক্তিভিত্তিক কর্মীরা। বিস্কুটের প্যাকেট বা জলের বোতল পৌঁছে দিতে দাবি করা হচ্ছে ২০০ টাকা পর্যন্ত। 

প্রতিবেদনে দাবি করা হয়েছে মেডিক্যাল কলেজে সিসিইউ-র বেড পাইয়ে দিতে ১২,০০০ টাকা পর্যন্ত দাবি করছে দালালরা। এক রোগীর আত্মীয়ের বয়ানে, শেষ পর্যন্ত ৫০০০ টাকায় রফা হয়। সেকথা বাইরে জানালে রোগীকে নাকের নল খুলে খুন করার হুমকি দেয় দালালরা।

গোপন ক্যামেরায় ধরা ভিডিয়োয় রোগীর আত্মীয় দাবি করেন, করোনা ওয়ার্ডের মধ্যে রোগী মল-মূত্র মেখে বসে থাকলেও তাঁকে পরিষ্কার করছেন না চুক্তিভিত্তিক কর্মীরা। রোগীর সেবা করার জন্য মোটা টাকা দিতে হচ্ছে পরিবারকে।  ঘটনার কথা জেনে তদন্তের আশ্বাস দিয়েছেন সুপার ইন্দ্রনীল বিশ্বাস। 

 

বন্ধ করুন