বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > দ্বিতীয়বার ময়নাতদন্তে ভুয়ো এনকাউন্টারের দাবি খারিজ, গুলিতেই মৃত্যু গ্যাংস্টারের
লুধিয়ানায় পুলিশ খুনে অভিযুক্ত জয়পাল ভুল্লার (ফাইল ছবি)
লুধিয়ানায় পুলিশ খুনে অভিযুক্ত জয়পাল ভুল্লার (ফাইল ছবি)

দ্বিতীয়বার ময়নাতদন্তে ভুয়ো এনকাউন্টারের দাবি খারিজ, গুলিতেই মৃত্যু গ্যাংস্টারের

  • ডেরা বদলালে ফোনও বদলে ফেলত ভুল্লার

দ্বিতীয়বার ময়নাতদন্তের পরেও এটাই সামনে আসছে যে, গুলিতেই মৃত্যু হয়েছিল পঞ্জাবের গ্যাংস্টার জয়পাল সিং ভুল্লারের। পঞ্জাব- হরিয়ানা আদালতের নির্দেশে মঙ্গলবার দ্বিতীয়বার ময়নাতদন্ত হয় ভু্ল্লারের মৃতদেহের। সেই রিপোর্টেও গুলিতে মৃত্যুর কথা বলা হয়েছে। মারধরের কোনও প্রমাণ পাওয়া যায়নি। প্রসঙ্গত পুলিশ হত্যায় অভিযুক্ত গ্য়াংস্টার জয়পাল সিং ভুল্লার ও তার সঙ্গী কলকাতার নিউটাউন রাজারহাটের একটি আবাসনে ডেরা নিয়েছিল। গোপন সূত্রে খবর পেয়ে কলকাতা পুলিশের এসটিএফ সেখানে অভিযান চালায়। এরপর এনকাউন্টারে মৃত্যু হয় তার। এদিকে ভুয়ো এনকাউন্টারে ভুল্লারের মৃত্যু হয়েছে বলে অভিযোগ তুলেছিলেন তার পরিবারের লোকজন। তবে সেধরণের কোনও প্রমাণ দ্বিতীয়বারের ময়নাতদন্তের পরেও পাওয়া যায়নি। 

এদিকে জয়পালের বাবা ভুপিন্দর সিং ভুল্লার ছেলের দেহ নিতে কলকাতায় এসেছিলেন। তিনি নিজেও পঞ্জাবের একজন পুলিশ কর্মী। ছেলের মৃত্য়ুর প্রকৃত কারণ জানতে চেয়ে তিনি নিজের রাজ্যে ফিরে গিয়ে আদালতের দ্বারস্থ হয়েছিলেন। এরপরই ভুল্লারের দেহের দ্বিতীয়বার ময়নাতদন্তের নির্দেশ দেয় আদালত। এদিকে কলকাতায় ময়নাতদন্তের সময় চারটি গুলি উদ্ধার হয়েছিল। আরও দশটি গুলির আঘাতের দাগ পাওয়া যায় তার শরীরে।

এর সঙ্গেই ভুল্লারের কাজকর্মের ধরণ দেখে হতবাক তদন্তকারীরা। পুলিশের চোখে ধুলো দিতে নানা কৌশল নিত সে। যেখানে গা ঢাকা দিত সে, সেখানে একাধিক নতুন ফোন সে ব্যবহার করত। কার্যত ঘরে বসেই সে কন্ট্রোল করত যাবতীয় নেটওয়ার্ক। ডেরা বদলালে ফের বদলে ফেলা হত ফোন। 

 

বন্ধ করুন