বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > ‘‌তৃণমূলের পদাধিকারী দেবাঞ্জন’‌, দিলীপের অভিযোগের পাল্টা জবাব দিলেন কুণাল
বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ (এএনআই )
বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ (এএনআই )

‘‌তৃণমূলের পদাধিকারী দেবাঞ্জন’‌, দিলীপের অভিযোগের পাল্টা জবাব দিলেন কুণাল

  • তাঁর দাবি, তৃণমূল কংগ্রেসের পদাধিকারী ছিলেন দেবাঞ্জন। তারও পাল্টা দিয়েছেন কুণাল ঘোষ।

ভুয়ো ভ্যাকসিন কাণ্ড নিয়ে দোষারোপের পালা অব্যাহত। আর তার জেরে তোলপাড় রাজ্য–রাজনীতি। বহু প্রভাবশালী রাজনৈতিক নেতার সঙ্গে দেবাঞ্জনের সম্পর্ক ছিল বলে অভিযোগ উঠেছে। তৃণমূল কংগ্রেস অভিযোগ করেছে রাজ্যপালের সঙ্গেও যোগ ছিল ভুয়ো আইএএসের। পাল্টা হিসাবে বিস্ফোরক টুইট করলেন রাজ্য বিজেপির সভাপতি দিলীপ ঘোষ। তাঁর দাবি, তৃণমূল কংগ্রেসের পদাধিকারী ছিলেন দেবাঞ্জন। তারও পাল্টা দিয়েছেন কুণাল ঘোষ।

এদিন দক্ষিণ কলকাতা তৃণমূল কংগ্রেসের তথ্য প্রযুক্তি সেলের আহ্বায়কের দায়িত্বে ছিলেন দেবাঞ্জন বলে অভিযোগ তুলেছেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি। বিজেপির এই দাবি উড়িয়ে দিয়েছে তৃণমূল সংগ্রেসের রাজ্য সম্পাদক কুণাল ঘোষ বলেন, ‘‌কাঁচের ঘরে বসে ঢিল ছুড়ছেন দিলীপ ঘোষ।’‌ শুক্রবার তিনি টুইটে লেখেন, ‘‌দেবাঞ্জন দেব দক্ষিণ কলকাতা তৃণমূল কংগ্রেসের তথ্যপ্রযুক্তি সেলের আহ্বায়কের দায়িত্বে ছিলেন বলে খবর পেয়েছি। সংগঠন থেকে সরকার সব জায়গায় জড়িত ছিলেন তিনি। সর্বোচ্চ নেতারা জানতেন। আর তাঁরা জানতেন বলেই এতদিন তিনি এসব করতে পেরেছেন।’‌

এই বিষয়ে কুণাল ঘোষ সরাসরি শুভেন্দু অধিকারীকে টেনে অভিযোগ করেন, ‘‌সারদা, নারদ, ত্রিপল কেলেঙ্কারিতে যিনি অভিযুক্ত, তাঁকে বিরোধী দলনেতা বানিয়েছে রাজ্য বিজেপি।’‌ উল্লেখ্য, বৃহস্পতিবার সাংবাদিক বৈঠক করে তৃণমূল কংগ্রেসের পক্ষ থেকে সুখেন্দুশেখর রায় দাবি করেন, রাজ্যপালের সঙ্গে যোগ ছিল দেবাঞ্জনের। প্রমাণস্বরূপ বেশ কিছু ছবিও দেখান। সেখানে রাজ্যপাল ও তাঁর স্ত্রীর পিছনে দেখা যায় দেবাঞ্জনের নিরাপত্তারক্ষী অরবিন্দ বৈদ্যকে। বৃহস্পতিবার রাতেই গ্রেফতার করা হয়েছে অরবিন্দকে।

বন্ধ করুন