বাড়ি > বাংলার মুখ > কলকাতা > হরিদেবপুরে ফ্ল্যাট থেকে বৃদ্ধার পচাগলা দেহ উদ্ধার
প্রতীকি ছবি
প্রতীকি ছবি

হরিদেবপুরে ফ্ল্যাট থেকে বৃদ্ধার পচাগলা দেহ উদ্ধার

  • থানা থেকে পুলিশ কর্মীরা এসে দেহ ডাকাডাকি করলেও সাড়া মেলেনি। এর পর দরজা ভেঙে ভিতরে ঢোকেন তাঁরা। দেখেন মেঝেয় পড়ে রয়েছে বৃদ্ধার দেহ।

কলকাতায় ফের বন্ধ ফ্ল্যাট থেকে উদ্ধার বৃদ্ধার পচাগলা দেহ। ঘটনা দক্ষিণ শহরতলির হরিদেবপুরের। আরতি মিশ্র নামে ওই বৃদ্ধা ফ্ল্যাটে থাকতেন বলে জানিয়েছেন পড়শিরা। তাঁর স্বামী ও ছেলে ২ জনেই কর্মসূত্রে প্রবাসী। বুধবার ফ্ল্যাট থেকে পচা গন্ধ বেরনোয় পুলিশে খবর দেন আবাসনের বাসিন্দারা। পুলিশ এসে দেহ উদ্ধার করে। 

প্রতিবেশীরা জানিয়েছেন, কয়েকদিন ধরে বৃদ্ধাকে একেবারেই বাইরে দেখা যাচ্ছিল না। এমনিতেও বেশি একটা বেরোতেন না তিনি। ফলে আলাদা করে আর খোঁজ নেননি কেউ। কিন্তু বুধবার ফ্ল্যাট থেকে গন্ধ বেরোতে সন্দেহ হয়। খবর যায় হরিদেবপুর থানায়। 

থানা থেকে পুলিশ কর্মীরা এসে দেহ ডাকাডাকি করলেও সাড়া মেলেনি। এর পর দরজা ভেঙে ভিতরে ঢোকেন তাঁরা। দেখেন মেঝেয় পড়ে রয়েছে বৃদ্ধার দেহ। দেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তে পাঠিয়েছে তারা। 

প্রতিবেশীরা জানিয়েছেন, বৃদ্ধার ছেলে ও মেয়ে কর্মসূত্রে মুম্বইয়ে থাকেন। স্বামীও থাকেন ভিনরাজ্যে। ফলে একাই ফ্ল্যাটে থাকতেন আরতি দেবী। একাকীত্বের জেরে কিছুটা অবসাদেও ভুগছিলেন তিনি। কিন্তু প্রশ্ন হল, ৩ দিনেও ফোনে বৃদ্ধার একটা খবর নিলেন না কেউ?

 

বন্ধ করুন